সংখ্যা গরিষ্ঠতা প্রমাণে মরিয়া রাজস্থানের মুখ্যমন্ত্রী অশোক গেহলট। শুক্রবার দলের বিধয়কদের নিয়েই হাজির হলেন রাজভবনে। চটজলদি বিধানসভার অধিবেশন আহ্বান করার জন্য রাজ্যপাল কলরাজ মিশ্রর কাছে দরবার করেন। কিন্তু এদিন খালি হাতেই ফিরতে হল অশোক গেহলটকে। রাজ্যপালের কাছ থেকে কোনও সদর্থক উত্তর না পেয়ে ক্ষোভ উগরে দেন তিনি। 
 

রাজস্থানের মুখ্যমন্ত্রী অশোক গেহলট বলেন তাঁক শিবির বিধানসভার অধিবেশর ডাকার দাবি জানিয়েছে। আর সেই মর্মে বৃহস্পতিবারই রাজ্যপালের কাছে একটি চিঠি পাঠন হয়। তারপর রাতভর অপেক্ষা করা হয়। কিন্তু রাজ্যপাল এদিন সকালেও কোনও  উত্তর দেননি। আর রাজ্যপালের এই নীরবতা নিয়ে গেহলট রীতিমত নিশানা করেন কেন্দ্রীয় সরকারকে। 


গেহলটের অভিযোগ বিধানসভার অধিবেশন না ডাকার জন্য কেন্দ্র রাজ্যপালের ওপর চাপ তৈরি করেছে। এই ষড়যন্ত্রে বিজেপি জড়িয়ে রয়েছে বলেও অভিযোগ করেন গেহলট শিবির। রাজস্থানের মুখ্যমন্ত্রীর কথায় তাঁর হাতে পূর্ণ সংখ্যাগরিষ্ঠতা রয়েছে। তাই সোমবার থেকে বিধানসভার অধিবেশন শুরু করা যেতে পারে। আর তাতেই দুধ আর জল পরিষ্কার হয়ে যাবে বলেও দাবি করেন গেহলট। তবে রাজ্যপালের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে অশোক গেহলটের অনুরোধে এখনও পর্যন্ত না বলেননি তিনি। কিন্তু তিনি এখনও সিদ্ধান্ত নেননি।  সংবিধান অনুযায়ী সমস্ত পদক্ষেপ নেওয়া হবে বলেও জানিয়ে রাজস্থান রাজভবন।অন্যদিকে অশোক গেহলটের দাবি চিঠি লেখার পাশাপাশি টেলিফোনেও রাজ্যপালের কাছে বিধানসভার অধিবেশন ডাকার আবেদন জানিয়েছিলেন তিনি। পাশাপাশি সংবিধান রক্ষায় যাথাযথ পদক্ষেপ গ্রহণেরও আর্জি জানিয়েছিলেন।  তাঁর শিবিরের দাবি ১০৯ জন বিধায়কের সমর্থন রয়েছে মুখ্যমন্ত্রীর পক্ষে। 

পাইলটদের আবেদনে কেন্দ্রকে পার্টি রাজস্থান হাইকোর্টের, দলে ফিরলে শচীনদের স্বাগত জানাবেন বললেন গেহলট ..

করোনার করাল ছায়া পড়তে চলেছে স্বাধীনতা দিবসের অনুষ্ঠানে, সংক্রমণ এড়াতে জারি নির্দেশিকা ...

সীমান্ত উত্তাপ কমাতে আবারও বৈঠকের প্রস্তুতি ভারতের, প্যাংগং থেকে সরেনি ড্রাগনরা ..

এদিন তাঁর পক্ষে থাকা কংগ্রেস বিধায়কদের নিয়েই রাজভবনে যান অশোক গেহলট। রাজনৈতির বিশেষজ্ঞদের মতে বিধানসভার অধিবেশনের আগে রাজভবনেই শক্তিপরীক্ষা দিয়ে এসেছেন তিনি। তাঁর পক্ষে থাকা সাংসদরা রীতিমত স্লোগান তুলতে থাকে। বিধানসভার অধিবেশন ডাকার দাবি জানান পাশাপাশি অশোক গেহলটের নামেও স্লোগান দেয়। অনেক রাজনীতিবিদের কথায় শচীন পাইলটের সঙ্গে বিবাদ ভুলে অশোক গেহলট এবার রাজ্যপাল কলরাজ মিশ্রের সঙ্গে বিবাদে জড়িয়েছেন।