বিজ্ঞাপনে মুখ ঢেকে যাওয়ার মতো করেই খানিকটা সবুজ প্রকৃতিও আজ অনেকখানি ঢেকে গিয়েছে বিজ্ঞাপনে। খোলসা করে বলতে গেলে সাম্প্রতিককালে বিজ্ঞাপনের বাড়বাড়ন্তের কোপ গিয়ে পড়েছে প্রকৃতির ওপর। 

মনে হচ্ছে কীভাবে?-একটু চারিপাশের পরিবেশের দিকে তাকালেই দেখতে পাবেন গাছের গায়ে পেরেক গেঁথে লাগানো হচ্ছে পোস্টার। সেইসব পোসে স্টারে রয়েছে বিভিন্ন বিপণনের দ্রব্য সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য। অথচ এইভাবে যে পণ্য বা পরিষেবা সম্পর্কে মানুষের কাছে তথ্য পৌঁছে দেওয়া হলেও যে মাধ্যমের সাহায্যে এই কাজটি করা হচ্ছে সেই মাধ্যমের যে আখেরে কতখানি ক্ষতি হচ্ছে তা নিয়ে কার্যত কারওর মাথা ব্যথা রয়েছে বলে মনে হয় না।

 তবে এবার এক অভিনব উদ্যোগ নেওয়া হল চেন্নাই কর্পোরেশন-এর তরফে। চেন্নাই পৌরসভা উদ্যোগ নিয়ে কিছু বেসরকারি সংস্থাকে এবং ব্যক্তিকেও দায়িত্ব নিয়ে দশ দিনের মধ্যে গাছের গায়ে লাগানো বিজ্ঞাপন সরিয়ে ফেলার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। শুধু তাই নয়, কেউ যদি গাছের গায়ে বিজ্ঞাপন লাগান তাহলে তাহলে তার পঁচিশ হাজার টাকা জরিমানারও নির্দেশ দিয়েছে চেন্নাই পৌরসভা। 

ফের ভোলবদল ট্রাম্পের, কাশ্মীর ইস্যুতে মধ্যস্থতা করতে চাইলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট

মানুষকে ভয় দেখিয়ে সন্ত্রাসবাদী পোস্টার প্রকাশ, উপত্যকায় পুলিশের জালে ৮ লস্কর জঙ্গি

কাশ্মীর নিয়ে অশান্তির জের, জঙ্গি হামলা হতে পারে দক্ষিণ ভারতেও, প্রস্তুত সেনাবাহিনী

ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ বিজেপির প্রাক্তন সাংসদের বিরুদ্ধে,তদন্তের নির্দেশ দিল সুপ্রিম কোর্ট

চেন্নাই কর্পোরেশন কমিশনের তরফে জানানো হয়েছে, বিজ্ঞাপনের জন্য গাছের গায়ে অনেক সময়ে লোহার রড দিয়ে বা পেরেক ঠুকে অনেকসময়ে রঙিন আলো লাগানো হয়, যার ফলে  গাছের আয়ুক্ষয় হয়ে থাকে। তবে এই অনাচার আর হতে দিতে চায় না চেন্নাই সরকার। আর সেই কারণেই নেওয়া হয়েছে কড়া ব্যবস্থা। পৌরসভার তরফে আরও জানানো হয়েছে যে, কেউ যদি গাছের গায়ে বিজ্ঞাপন লাগানোর মতো কাজ করেন তাহলে তাকে চেন্নাই পৌরসভা আইন অনুসারে শাস্তি প্রদান করা হবে, যার জেরে অপরাধীর তিন বছর পর্যন্ত জেলও হতে পারে।