ভারত এবং পাকিস্তানের মধ্য়েকার উত্তেজনা প্রশমনের বিষয়ে ডোনাল্ড ট্রামপের মধ্যস্থতার বিষয়টির পাশাপাশি জম্মু ও কাশ্মীরে যে যে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে তারও বিলোপ সাধন চায় আমেরিকা। বৃহস্পতিবার এই নিয়েই বিশেষ বার্তা দিয়েছেন এক শীর্ষস্থানীয় কর্মকর্তা। প্রসঙ্গত, মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প চলতি সপ্তাহে দুই দেশের রাষ্ট্রনেতা যথাক্রমে নরেন্দ্র মোদী এবং ইমরান খান-এর সঙ্গে পৃথকভাবে বৈঠক করবেন বলে খবর। 

প্রসঙ্গত দুই দেশের রাষ্ট্রনেতাই আজ জাতিসঙ্ঘের সাধারণ সভায় ভাষণ দেবেন বলে খবর। প্রসঙ্গত প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প যে একটা বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক রয়েছে সে বিষয়টি এর আগেও প্রকাশ পেয়েছে। তবে একজন শীর্ষস্থানীয় কর্মকর্তার কথায়, জম্মু ও কাশ্মীরে গ্রেফতারি নিয়ে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র বরাবরই উদ্বেগ প্রকাশ করেছে। দক্ষিণ এশিয়ার স্টেট ডিপার্টমেন্ট অফিশিয়ালের তরফে শীর্ষকর্তা অ্যালিস ওয়েলেস জানিয়েছেন, 'এই বিষয়ে আমরা দ্রুত পদক্ষেপ গ্রহণ করার আশা প্রকাশ করছি, সেইসঙ্গে যাবতীয় প্রতিরোধ তুলে দেওয়া এবং যাদের আটক করা হয়েছে তারা যাতে যত তাড়াতাড়ি সম্ভব মুক্তি পায়, সেই আশাও করছে তারা। '

আরও পড়ুন- আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে সমাদৃত স্বচ্ছ ভারত অভিযান, 'গ্লোবাল গোলকিপার' পুরস্কার পেলেন নমো

আরও পড়ুন- বিরাট দুর্ঘটনার কবলে প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর কনভয়, ঘটনাস্থলে মৃত ২, ৩ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক

আরও পড়ুন- চন্দ্রপৃষ্ঠে হার্ড ল্যান্ডিং হয়েছে বিক্রমের, টুইট করে ল্যান্ডারের অবতরণের স্থান প্রকাশ নাসার

আরও পড়ুন- দেশজুড়ে ক্রমশ ঊর্ধ্বমুখী পেট্রল-ডিজেলের দাম, জেনে নিন কলকাতায় আজ জ্বালানির মূল্য কত

প্রসঙ্গত অগাস্ট মাসে জম্মু ও কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা প্রদানকারী ৩৭০ ধারা বাতিলের সিদ্ধান্ত নেওয়ার পর থেকেই জম্মু ও কাশ্মীরে একের পর এক রাজনৈতিক নেতাদের আটক করে রাখার খবর প্রকাশ্যে এসেছিল। সেইসঙ্গে উপত্যকায় মোবাইল ও ইন্টারনেট পরিষেবাও বন্ধ করে দেওয়া হয়েছিল। অ্যালিস ওয়েলেস জানিয়েছেন, কাশ্মীর নিয়ে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র সর্বোচ্চ স্তরে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ইচ্ছা প্রকাশ করেছে যে, জম্মু ও কাশ্মীরের পরিস্থিতি যত শীঘ্রই সম্ভব স্বাভাবিক হয়ে ওঠে।