ঘটনাটি খুবই অস্বাভাবিক। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে সবুজ রঙের কুকুরছানার জন্মের পর এইবার সোশ্যাল মিডিয়ায় হইচই ফেলে দিল থাইল্যান্ডে জন্মানো একটি এক চোখের কুকুরছানা। গ্রিক বা রোমান পুরাণ কথায় যে একচোখের দৈত্য 'সাইক্লোপস'-এর কথা রয়েছে, এই কুকুরছানাটিকে দেখলে ঠিক তার কথাই মনে পড়ে যায়। তবে নেটিজেনরা তার সঙ্গে হলিউডের বিখ্যাত অ্যানিমেশন চরিত্রের সঙ্গেও তার মিল পেয়েছেন।

আরও পড়ুন - জন্ম নিল সবুজ রঙের কুকুরছানা, নেটপাড়ায় পড়ল শোরগোল

জানা গিয়েছে, কুকুরছানাটি স্বাভাবিক নয়। জিনগতভাবে মিউটেশন বা অভিযোজনের জন্যই তার শারীরিক বিকৃতি রয়েছে। দুটি চোখের একটি সম্পূর্ণভাবে গঠিত হলেও, আরেকটি চোখ সুগঠিত নয়। হলিউডি অ্যানিমেশন ছবি মিনিয়ন্স-এ কেভিন নামে এক চোখের একটি কার্টুন চরিত্র রয়েছে। কুকুরছানাটিকে দেখে অনেকেরই সেই কেভিনের কথা মনে পড়েছে। তার থেকেই ছানাটির নাম দেওয়া হয়েছে, কেভিন।

আরও পড়ুন - মেয়রের পদের জন্য নির্বাচন, হাড্ডাহাড্ডি লড়াই ২ কুকুর ও ছাগলের মধ্যে

জানা গিয়েছে ছানাটির মা 'অস্পিন' প্রজাতির। সাধারণত ফিলিপাইন্স-এই এই প্রজাতির দেখা মেলে। তবে তার বাবা কোন প্রজাতির তা জানা যায়নি। পসু চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, অস্পিন জাতীয় কুকুর স্বাভাবিকভাবে প্রায় ১৪-বছর বাঁচে। কিন্তু, দুঃখের শারীরিক বিকৃতির কারণে কেভিন সম্ভবত বেশিদিন বাঁচবে না। খুব বেশি হলে এক সপ্তাহ তাঁর আয়ু বলে জানিয়েছেন পশু চিকিৎসকরা।

আরও পড়ুন - বরফের মাঝে একাই স্লেজ করছে কুকুর, সারমেয়র বুদ্ধিতে মাত নেট দুনিয়া, ভাইরাল হল ভিডিও

কেভিনের মালিক থাইল্যান্ডের একজন সরকারি কর্মচারী। তিনি ফেসবুকে জানিয়েছেন, অফিস যাওয়ার জন্য প্রস্তুত হচ্ছিলেন তিনি। তখনই দেখেন তাঁর পোষা কুকুরটি দুটি কুকুরছানার জন্ম দিয়েছে। অফিস মাথায় ওঠে তাঁর। বাচ্চাগুলিকে নিয়ে তিনি একটি ঝুড়ির ভিতরে রাখেন। সেই সময়ই তিনি কেভিনের শারীরিক বিকৃতি ও চোখের এই অনন্যতা লক্ষ্য করেন। তবে কেভিন বেশিদিন বাঁচবে না শোনা ইস্তক বেশ মনোকষ্টে আছেন তিনি।

আরও পড়ুন - কুকুর ছানাদের বিষ খাইয়ে খুন, দেহ আগলে বসে 'অবুঝ' মা