বাইপাসের ধারের বস্তিতে ২ জনের করোনা উপসর্গ পাওয়া গিয়েছে। যার জেরে বস্তির ১৫০০০ মানুষকে পাঠানো হল হোম কোয়ারেনন্টিনে। এই ঘটনার পরে কিছুটা হলেও আতঙ্কে প্রশাসন। ই এম বাইপাস সংলগ্ন কলকাতা পুরসভার ১০৯ নম্বর ওয়ার্ডের শহিদ স্মৃতি কলোনির সব বাসিন্দাকে পুরোপুরি গৃহবন্দি করে ফেলা হয়েছে। বন্ধ করা হয়েছে, ইএম বাইপাস থেকে ওই বস্তির সমস্ত রাস্তা। সকাল থেকেই বস্তির পাশে টহল দিচ্ছে কমব্যাট ফোর্স।

আরও পড়ুন, লকডাউনে কাজ হারিয়েছেন আইনজীবীরা, সাহায্য়ে এগিয়ে এল বার কাউন্সিল

পুরসভা সূত্রে খবর,  ওই কলোনির প্রায় ৩০০০ জন মহিলা বাইপাস সংলগ্ন এলাকা সহ দক্ষিণ কলকাতার বিভিন্ন এলাকায় পরিচারিকার কাজ করেন। পাশাপাশি রাজ্যের প্রথম করোনা আক্রান্ত আমলা পুত্র ১০৯ নম্বর ওয়ার্ডেই নিউ গড়িয়ার একটি আবাসনের বাসিন্দা। সম্প্রতি ওই কলোনির বাসিন্দা, স্থানীয় একটি বেসরকারি হাসপাতালের এক কর্মীর করোনার উপসর্গ দেখা দেয়। তাঁকে ওই বেসরকারি হাসপাতালেই ভর্তি করা হয়। প্রশাসন সূত্রের খবর, শনিবার রাতে তাঁর রিপোর্ট পজ়িটিভ আসে। এর পরেই তাঁর পরিবারের তিন জনকে কোয়রান্টিনে নিয়ে নেওয়া হয়। ওই মহিলার পজ়িটিভ ধরা পড়ার পরেই নড়েচড়ে বসেন জেলা প্রশাসন ও কলকাতা পুরসভার কর্তারা।  

আরও পড়ুন, লকডাউনে ছবি দেখে শিউরে উঠবেন আপনি, নিউটাউনের মাছ বাজারে 'শুধুই মাথা'

 

প্রশাসনের কর্তারা মনে করছেন, ওই কলোনিতে অনেক মানুষ ঘনসন্নিবিষ্টভাবে বসবাস করেন। তাতে অন্য বাসিন্দাদেরও সংক্রমিত হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। সেই কারণেই ওই কলোনির বাসিন্দাদের বাইরে যাতায়াত পুরোপুরি বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।ইএম বাইপাস থেকে ওই বস্তির চার দিকের সমস্ত রাস্তা বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। ১০৯ নম্বর ওয়ার্ড পঞ্চসায়র ও পূর্ব যাদবপুর থানার অধীনে রয়েছে।  প্রশাসনের দাবি, ওই কলোনিকে একেবারে বিচ্ছিন্ন করা হয়েছে। এবিষয়ে দক্ষিণ ২৪ পরগনার জেলাশাসক পি উলগানাথন বলেন, 'পুলিশ ও কমব্যাট ফোর্স মোতায়েন করা হয়েছে। কোনও ভাবেই ওই কলোনি থেকে যাতে সংক্রমণ না ছাড়ায়, সে দিকে নজর রাখা হচ্ছে। উপসর্গ অনুযায়ী স্বাস্থ্য পরীক্ষা করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।'

 

  'হটস্পট' এলাকা থেকে আসায় প্রসুতিকে ফিরিয়ে দিল এনআরএস, চরম যন্ত্রনা নিয়ে ঘরেই প্রসব-মৃত সদ্যোজাত

করোনার কোপ এবার সেন্ট্রাল মেডিক্যাল স্টোরে, বেলেঘাটা আইডিতে ভর্তি শীর্ষ স্বাস্থ্যকর্তা

 করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্য়ু ক্যানসার রোগীর,আতঙ্ক ছড়াল রাজারহাটের হাসপাতালে