মেডিক্যালের করোনা আক্রান্তের সংস্পর্শের জেরেই  এ বার আতঙ্ক ছড়াল দমকল বাহিনীতে। কলকাতা মেডিক্যালে কর্তব্যরত তিন জন নার্স করোনা আক্রান্ত। তাঁদেরই এক জনের স্বামী দমকলের মানিকতলা কেন্দ্রের কর্মী। এ খবর প্রকাশ্য়ে আসতেই আতঙ্কে অধিকাংশ কর্মী দমকল কেন্দ্র থেকে বেরিয়ে যান। পরে দমকলের শীর্ষ কর্তারা মানিকতলা কেন্দ্রে পৌঁছন। দমকলমন্ত্রী সুজিত বসু জানিয়েছেন, মানিকতলা দমকল কেন্দ্রের ৩২ জন কর্মীকে ১৪ দিনের গৃহ পর্যবেক্ষণে পাঠানো হয়েছে।

আরও পড়ুন, সঙ্ঘাত শেষেও ঘরবন্দি, করোনা পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে মুখ্যসচিবকে চিঠি কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি দলের

দমকল সূত্রের খবর, মঙ্গলবার বিকেলে প্রথমে ঠিক হয়, চিত্তরঞ্জন অ্যাভিনিউ দমকল কেন্দ্র থেকে মানিকতলায় কর্মী এনে ঘাটতি পূরণ করা হবে। পরে উত্তর কলকাতা ডিভিশনের অন্য দমকল কেন্দ্র থেকে কুড়ি জন কর্মীকে সেখানে পাঠানো হয়। বর্তমানে মানিকতলা কেন্দ্রে কর্মী ৬০ জনের বেশি। তাঁদের অনেকেই এখন আতঙ্কিত। এ দিন এক কর্মী বলেন, 'করোনা আক্রান্ত নার্সের স্বামী আমাদের অনেকেরই পরোক্ষ ভাবে হলেও সংস্পর্শে এসেছিলেন। সেই কর্মীদের অনেকেই এখনও অফিস করছেন।'  

আরও পড়ুন, নিরপেক্ষ ভাবেই রিপোর্ট তৈরি করবে কেন্দ্রীয় দল, সহযোগিতার আশ্বাস দিয়ে আশা রাজ্যের


অপরদিকে, দমকলমন্ত্রী সুজিত বসুর আশ্বাস দিয়ে জানিয়েছেন, ' ওই খবর  পেয়েই পুরো মানিকতলা দমকল কেন্দ্র  জীবাণুমুক্ত করা হয়েছে।' তিনি আরও জানান, স্বাস্থ্য দফতরের সঙ্গে আলোচনার পরেই ৩২ জনকে গৃহ পর্যবেক্ষণে পাঠানো হয়েছ। তাই কেন্দ্রের বাকি কর্মীদের আতঙ্কিত হওয়ার কারণ নেই বলে তিনি জানিয়েছেন।

 

 

বাড়ছে করোনা আক্রান্তের সংখ্য়া, মেডিক্য়ালে চিকিৎসক ও সংক্রামিত রোগী থেকে কোয়ারেন্টিনে অন্তত আরও ৪৫

  করোনা পজিটিভ প্রসূতির সুস্থ সন্তান, খুশির হাওয়া ফুলেশ্বরের হাসপাতালে

  করোনার কোপ এবার বাইপাসের ধারের বস্তিতে, ১৫০০০ মানুষকে পাঠানো হল কোয়ারেনন্টিনে