দিন কয়েক আগেই রাজ্যে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ নিয়ে গোষ্ঠী সংক্রমণের আশঙ্কা করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এই মুহূর্তে এমনকিছু তথ্য সামনে আসছে যাতে আক্রান্তদের কোনও ট্র্যাভেল হিস্ট্রি পাওয়া যাচ্ছে না। 

আরও পড়ুন, করোনা পজিটিভ প্রসূতির সুস্থ সন্তান, খুশির হাওয়া ফুলেশ্বরের হাসপাতালে

বুধবার রাত পর্যন্ত নতুন করে ৫৪ জন কে কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়েছে। এর মধ্যে হোম কোয়েরেন্টাইন এবং পেইড কোয়ারেন্টাইন এবং সরকারি উদ্যোগে হওয়া আইসোলেশনে যাওয়ারাও রয়েছেন। মেডিক্যাল কলেজে এক ইন্টার্ন চিকিৎসক করোনা পজিটিভ। তাঁর সংস্পর্শে অন্তত ৮ জন এবং ইনডিরেক্ট কন্ট্যাক্টে আরও ৭ জন রয়েছে। মেডিক্যাল কলেজে করোনা পজিটিভ চিকিৎসক এবং করোনা পজিটিভ সাধারণ নাগরিকের সংস্পর্শে আসা ৩৮ জনকেও চিহ্নিত করা সম্ভব হয়েছে। এদেরও হোম কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হবে অথবা হয়েছে।

আরও পড়ুন, চরম দারিদ্রেও ৩ বন্ধুর চেষ্টায় মুগ্ধ ভারত সেবাশ্রম, লকডাউনে খাবার পেয়ে আশীর্বাদ পর্ণশ্রীর ৫০টি পরিবারের

 

করোনা পজিটিভদের মধ্যে নতুন করে তিন জন নার্সের সন্ধান মিলেছে। এদের সংস্পর্শে অন্তত ৭ জন রয়েছে। এদের মধ্যে এক নার্স মেসে যে ঘরে থাকতেন, সেখানকার বাকি ২ বোর্ডারকেও কোয়ারেন্টাইন করা হয়েছে। ৭১ বছরের এক বৃদ্ধও করোনা পজিটিভ। এই প্রবীণের স্ত্রী, তাঁর গাড়ির চালক, পরিবারের আরও ৪ জনকে কোয়ারেন্টাইন করা হয়েছে। এখনও পর্যন্ত যা খবর এরা সকলেই পেইড কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন। করোনায় আক্রান্ত এক নার্সের চিকিৎসা করা এক চিকিৎসকেরও খোঁজ চলছে। নতুন করে করোনায় আক্রান্তের তালিকায় ২৬ বছরের এক যুবতী এবং এক মধ্য বয়সী-ও রয়েছেন। করোনা পজিটিভ হয়েছিলেন ৬৬ বছরের এক প্রবীণা। তিনি দেড় বছর ধরে ক্যানসারে ভুগছিলেন। কার্যত শয্যাশায়ী ছিলেন তিনি। তাঁর মৃত্যু হয়েছে। তবে, করোনার জন্য তাঁর মৃত্যু কি না তা জানা যায়নি। 

 

আরও পড়ুন, করোনার কোপ এবার বাইপাসের ধারের বস্তিতে, ১৫০০০ মানুষকে পাঠানো হল কোয়ারেনন্টিনে

আরও পড়ুন, ভেন্টিলেশনে করোনা আক্রান্ত রাজ্য়ের স্বাস্থ্য কর্তা ও সার্জন, উদ্বিগ্ন স্বাস্থ্য দফতর

  'হটস্পট' এলাকা থেকে আসায় প্রসুতিকে ফিরিয়ে দিল এনআরএস, চরম যন্ত্রনা নিয়ে ঘরেই প্রসব-মৃত সদ্যোজাত