Asianet News BanglaAsianet News Bangla

পয়লা মার্চ রাজ্যে আসছেন অমিত শাহ, সংবর্ধনার প্রস্তুতি রাজ্য বিজেপির

 

  • কলকাতায় আসছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ
  • পশ্চিমবঙ্গে নাগরিকত্ব আইনের প্রয়োজনীয়তা বোঝাবেন 
  • বিরোধী প্রচারের মোকাবিলা করতে বাংলার ময়দানে শাহ
  • স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর জন্য সংবর্ধনার আয়োজন রাজ্য বিজেপির
Amit Shah visit Kolkata on 1st march
Author
Kolkata, First Published Feb 15, 2020, 3:54 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

নাগরিকত্ব আইন নিয়ে এখনও দেশজুড়ে চলছে বিক্ষোভ আন্দোলন। এই আন্দোলনের তাপে অনেকটাই ব্যাকফুটে মোদী সরকার। সিএএ পাসের পর ঝাড়খণ্ড হাতছাড়া হয়েছে বিজেপির। দিল্লিতেও অরবিন্দ কেজরিওয়ালের কাছে গোহারা হারতে হয়েছে গেরুয়া শিবিরকে। এদিকে এরাজ্যে নাগরিকত্ব আইনের বিরোধিতায় লাগাতার প্রচার চালিয়ে যাচ্ছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। পথে নেমেছে বাম-কংগ্রেসও। এই বিরোধী প্রচারের মোকাবিলা করতে এবার রাজ্যে আসছেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। 

আরও পড়ুন: 'জনপ্রিয়তায় আমিই সেরা, দ্বিতীয় মোদী', জুকারবার্গকে টেনে ভারত সফরের আগে ফুরফুরে ট্রাম্প

বিজেপি সূত্রে জানা যাচ্ছে পয়লা মার্চ কলকাতায় আসবেন কেন্দ্রের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের সমর্থনে প্রচার করবেন অমিত শাহ। মূলত সিএএ ও এনপিআরের প্রয়োজনীয়তার কথা জনমানসে তুলে ধরতেই শাহের এই কলকাতা সফর বলে রাজ্য বিজেপি সূত্রে জানা গেছে।

এদিকে শাহের কলকাতা আগমন ঘিরে  তাঁর জন্য সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করছে  রাজ্য বিজেপি। নাগরিকত্ব আইন পাসের জন্য কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে এই সংবর্ধনা দেওয়া হবে বলে জানিয়েছে রাজ্য বিজেপি। তবে কোথায় এই অনুষ্ঠানের আয়োজন হচ্ছে  করা তা এখনও স্থির করে উঠতে পারেনি বিজেপি নেতৃত্ব।

আরও পড়ুন: কাশ্মীর ইস্যুতে ইমরানের হাত ধরলেন এরদোগান, তুরস্কের প্রেসিডেন্টকে কড়া বার্তা ভারতের

আগামী বছর পশ্চিমবঙ্গে বিধানসভা ভোট। এদিকে সিএএ, এনআরসি, এনআরপি-কে ইস্যু করে ইতিমধ্যে কেন্দ্রের বিরুদ্ধে পথে নেমে পড়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। লোকসভা ভোটের আগে বাংলায় যে বিজেপি হাওয়া উঠেছিল সারা দেশের মত এরাজ্যেও বর্তমানে তা অস্তিমিত। বিজেপির রাজ্য নেতৃত্ব সিএএ, এনআরসি, এনপিআর-এর সমর্থনে পথে নামলেও তেমন সাড়া মিলছে না। এই অবস্থায় পশ্চিমবঙ্গে নাগরিকত্ব আইন কেন দরকার তা বোঝাতে অমিত শাহকেই হাল ধরতে হচ্ছে বলে মনে করছে রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞ মহল। 

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios