রোগীর সেবাই যাঁদের অঙ্গীকার, তাঁদের এ কেমন আচরণ! এসএসকেএম-এর ঘটনা প্রকাশ্যে আসার পর এমনই প্রশ্ন ঘুরে ফিরছে মানুষের মুখে। অসহায় রোগীর সঙ্গে এই হাসপাতালের দুই কর্মী যে ধরণের আচরণ করেছিলেন রোগীর পরিবার তা জানাতেই গ্রেফতার করা হয় অভিযুক্ত দুই কর্মীকে।

ঘটনাটি ঘটে ডিসেম্বর মাসে। দুই নাবালিক হার্ট ও মস্তিষ্কের সমস্যা নিয়ে এসএসকেএম-এ ভর্তি হয়। ওয়ার্ডের ট্রলি নিয়ে যাওয়া নিয়ে আসার দায়িত্ব থাকা এই দুই গ্রুপ ডি কর্মী সেদিন এই দুই নাবালিকাকে স্থানান্তরিত করছিলেন। এমনই সময় দুই নাবালিকার বুকে মাথা রেখে সেলফি তুলে নিলেন দুই কর্মী। শত আপত্তি থাকার সত্বেও কোনও কথাই কানে তোলেননি তাঁরা। অসহায় দুই নাবালিকা তখন নিরুপায় থাকলেও পরে তারা সমস্ত ঘটনা খুলে বলে বাড়িতে। 

আরও পড়ুনঃ অনবরত বৃষ্টির জেরে বাড়ছে নদীর জলস্তর! আতঙ্কে মানুষ

দুই নাবালিকার বাড়িই উত্তর ২৪ পরগনায়। দুজনেই ঘটনাটি তাদের পরিবারের সকলকে জানায়। তাদের অভিযোগের ভিত্তিতেই স্থানীয় থানার লিপিবদ্ধ করা হয় বয়ান। এবার তার ভিত্তিতে গ্রেফতার করা হয় অভিযুক্ত দুই কর্মীকে। ভবানীপুর থানা থেকে বাজেয়াপ্তও করা হয় অভিযুক্তদের ফোন। 

ওয়ার্ডে সকলের নজর এড়িয়ে কীভাবে ঘটল এই ঘটনা সেদিকেও কড়া নজর দিয়েছেন কর্তৃপক্ষ। হাসপাতালে রোগীদের অসহায়তার সুযোগ নিয়ে এই ধরনের অশ্লীল আচরণের হতবাক সকলেই।