বিশ্বনাথ দাস, হাওড়া-শুভেন্দুর পর রাজীব বন্দ্য়োপাধ্যায়। দলের প্রতি অসন্তোষ প্রকাশ করে প্রকাশ্যে তীব্র মন্তব্য করেন। তাঁর এই মন্তব্যের তীব্র সমালোচনা করলেন সমবায়মন্ত্রী অরূপ রায়। দলে থেকে ব্ল্যাকমেল করা যাবে না বলে রাজীবকে হুঁশিয়ারি দিলেন তিনি। দলে অনেক ব্যক্তিই নিঃস্বার্থভাবে কাজ করছেন বলে মন্তব্য করেন তিনি।

আরও পড়ুন-বেনাচাপড়া কঙ্কালকাণ্ডের ৯ বছর পার,ঘরে ফিরছেন সিপিএম নেতা সুশান্ত ঘোষ

শনিবার টালিগঞ্জের এক অনুষ্ঠানে হাজির হয়ে দলের প্রতি অসন্তোষ প্রকাশ করেছিলেন হাওড়ার ডোমজুড়ের বিধায়ক রাজীব বন্দ্যোপাধ্য়ায়। তিনি বলেন, ''শুভেন্দু অধিকারী চলে গেলে দলে বিশাল শূন্যতা তৈরি হবে। নেতাদের এত ক্ষোভ বিক্ষোভ কেন। তা অনুসন্ধান করা খুবই জরুরি। আরও আগে এসব ভাবা উচিত ছিল। ভালকে খারাপ, খারাপকে ভাল বললেই মুশকিল। যাঁরা মাঠে ঘাটে কাজ করে তাঁরা প্রাধান্য পায় না। ক্ষমতা লোভীরা দলে জায়গা পাচ্ছে। দলে যারা স্তাবক তাদের নম্বর বেশি । আমি ওসব করতে পারি না তাই নম্বর কম ।"

আরও পড়ুন-শীত পড়লেও হদিশ নেই কাশ্মীরি শালওলাদের, করোনা থাবায় নিজের রাজ্যে ফিরেছেন তাঁরা

রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায় দলের প্রতি এই মন্তব্যে রাজ্য় রাজনীতিতে তীব্র জল্পনা শুরু হয়। রাজীবের তীব্র সমালোচনা করেন দলের শীর্ষ নেতৃত্বরা। রাজীবকে হুঁশিয়ারি দিয়ে সমবায়মন্ত্রী অরূপ রায় বলেন, ''চালুনি আবার ছুঁচের বিচার করে। দলে থেকে ব্ল্যাকমেলিং করা যাবে না। দলে অনেক গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি আছেন। তাঁরা নিঃস্বার্থভাবে কাজ করছেন। তাঁরা মন্ত্রী নন বা বিধায়ক নন। কিন্তু একজন দলের জন্য কিছু ত্যাগ না করে শুধু নিতে এসেছে। তাঁদের মুখে এসব কথা শোভা পায়না।
তৃণমূল হল জনসমুদ্র,সমুদ্রের জল কোনওদিন কমে না''।