পশ্চিমবঙ্গের শিল্প সম্ভাবনা নিয়ে এবার শিল্পপতিদের সঙ্গে আলোচনা করতে চলেছে বিজেপি। আগামী ডিসেম্বর - জানুয়ারি মাসে বিভিন্ন শিল্পপতিদের সঙ্গে আলোচনা করবেন বলে জানিয়েছেন বিজেপির রাজ্যসভার সাংসদ স্বপন দাশগুপ্ত। কলকাতায় শুক্রবার তিনি জানিয়েছেন, পশ্চিমবাংলায় শিল্পের অবস্থা অত্যন্ত খারাপ। রাজ্যের অর্থনীতি ক্রমশ ভেঙ্গে পড়ছে। কেন বড় শিল্পপতিরা এই রাজ্যের প্রতি অনীহা প্রকাশ করছে তা জানতে হবে। সে কারণেই শিল্পপতিদের নিয়ে আলোচনা করবেন বলে জানিয়েছেন তিনি। এই রাজ্যে যাতে আগামী দিনে শিল্প স্থাপন করা হয়। শিল্প স্থাপনের পরিবেশ তৈরি হয়, সে বিষয়ে শিল্পপতিদের সঙ্গে কথা বলবেন। 

আরও পড়ুন-তৃণমূলের গোষ্ঠী কোন্দল ঘিরে বোমাবাজি-উত্তেজনা, পরিস্থিতি সামাল দিতে পুলিশের ধরপাকড়

বিজেপি রাজ্যসভার সাংসদ স্বপন দাশগুপ্ত সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে আরও জানিয়েছেন, গত ৫০ বছরে বাংলা তার গৌরব হারিয়েছে, বাংলাতে শিল্পক্ষেত্রে টেনে তুলতে হবে। সে কারণেই এই পরিকল্পনা নিয়েছেন তারা। তবে রাজ্য সরকারের কায়দায় শিল্প সম্মেলনের ভাবনা নয়, শিল্পপতিদের সঙ্গে আলোচনা করতে চাইছেন তারা।

আরও পড়ুন-ডেপুটি স্পিকারের শেষকৃত্যে পূর্বপুরুষের নিয়মের গেরো, ঝাড়গ্রামে সুকুমার হাঁসদার শবদাহে বাধা

তবে বিজেপির এই ভাবনাকে কার্যত হাস্যকর করে বলে উড়িয়ে দিয়েছেন তৃণমূল নেতৃত্ব। তৃণমূল নেতা তথা লোকসভার সাংসদ সৌগত রায় জানিয়েছেন, রাজ্যে শিল্প স্থাপন করতে গেলে সরকারে আসতে হবে বিজেপিকে। সরকারে না এসে শিল্পপতিদের সঙ্গে আলোচনা করার অর্থ ভোটব্যাঙ্কের রাজনীতির বলে জানিয়েছেন তিনি। একইসঙ্গে তিনি পরামর্শ দিয়েছেন কলকাতায় শিল্প সম্মেলন না করে দিল্লিতে গিয়ে শিল্পপতিদের সঙ্গে আলোচনা করুন। 

আরও পড়ুন-শিক্ষা ব্যবস্থায় দেশের সেরা পশ্চিমবঙ্গ, সমীক্ষা রিপোর্টে প্রকাশ স্কুল ছুট বন্ধে শীর্ষে বাংলা


রাজনৈতিক নেতারা যাই বলুন না কেন, বিজেপির এই বক্তব্যের মধ্যে সম্পূর্ণ রাজনৈতিক গন্ধ পাচ্ছেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা। তাদের বক্তব্য ২০২১ বিধানসভা নির্বাচনের আগে রাজ্যে বেকারত্ব, কারখানা বন্ধ এই সমস্ত ইস্যুকে আরো একবার সামনে তুলে এনে রাজ্যের সমালোচনা করায় বিজেপির মূল লক্ষ্য।