বিজেপির নবান্ন অভিযান ঘিরে ধুন্ধুমার কাণ্ড হাওড়া এবং কলকাতায়। চারিদিকে তাণ্ডব-বিক্ষোভ-রণক্ষেত্রের চেহারা দেখেছিল রাজ্যবাসী। বিজেপির সেই অভিযান ঘিরে পুলিশের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছে জলকামানে রাসায়নিক স্প্রে করার। পাশাপাশি, মিছিলে বিজেপি কর্মী-সমর্থকদের  উপর বোমাবাজিরও অভিযোগ উঠেছে। সেই বোমাবাজির অভিযোগ জানাতে জোড়াসাঁকো থানায় গেলেন বিজেপি যুব মোর্চার সর্বভারতীয় সভাপতি তেজস্বী সূর্য। 

জোড়াসাঁকো থানায় অভিযোগ জানাতে গিয়ে ট্যুইটে তিনি লিখেছেন, ''নবান্ন অভিযানে বিজেপি কর্মকর্তাদের উপর বোমাবাজি করা হয়। তার বিরুদ্ধে আমরা আজ জোড়াসাঁকো থানায় অভিযোগ জানাতে এসেছি। আমরা থানার ইন্সপেক্টরকে এফআইআর করার কথা বললে তিনি দেরি করতে থাকেন। তিনি তাঁর ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশের অপেক্ষা করছেন''। 

আরও পড়ুন-নাশকতা নয়, প্রাক্তন মাওবাদী তকমা দিয়ে চাকরির দাবিতে সরব জঙ্গলমহল

পাশাপাশি তিনি ট্য়ুইটে আরও লিখেছেন, ''এই গুরুতর অপরাধের অবশ্যই পুলিশের অভিযোগ নেওয়া উচিত। আমরা ৪৫ মিনিট ধরে জোড়াসাঁকো থানায় বসে এফআইআর-এর জন্য অপেক্ষা করছি''।

আরও পড়ুন-বাবাকে বাঁচাতে দুই ভাইয়ের ঝুঁকি, গ্রামবাসীদের রুদ্ধশ্বাস লড়াইয়ের পরও মর্মান্তিক মৃত্যু

বৃহস্পতিবার হাওড়া ময়দানে বিজেপির মিছিল থেকে এক ব্যক্তির কাছ থেকে আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধার করেছিল পুলিশ। সেই ঘটনায় ধৃত ব্যক্তিকে তৃণমূলের লোক বলে দাবি করেছিলেন বিজেপি নেত্রী লকেট চট্টোপাধ্যায়। পাশাপাশি, সাঁতরাগাছি জলকামান থেকে ছোঁড়া জলে অসুস্থ হয়েছিলেন বিজেপি নেতা রাজু বন্দ্য়োপাধ্য়ায়। ঘটনায় পুলিশ জলকামানে রাসায়নিক ব্যবহার করেছে বলেও অভিযোগ উঠেছে। এই অবস্থায় বিজেপির অভিযানে কর্মী সমর্থকদের উপর বোমাবাজির অভিযোগ তুলেছে বিজেপি।

আরও পড়ুন-প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনায় 'কাটমানি-স্বজনপোষণ', বিডিও অফিসে বিক্ষোভ গ্রামবাসীদের

বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি তেজস্বী সূর্যর ট্য়ুইটারে হ্য়ান্ডেলে আরও একটি ভিডিও পোস্ট করা হয়েছে। সেখানে দেখা যাচ্ছে কে বা কারা ছাদের উপর থেকে বিজেপি কর্মীদের উপর বোমা ছুঁড়ছে। এই বোমাবাজির অভিযোগে জোড়াসাঁকো থানায় অভিযোগ জানাতে গিয়েছেন জেতস্বী সূর্য।