রুশি পাঁজা: তাহলে শেষপর্যন্ত সিবিআই তদন্তেরই নির্দেশ দেবে আদালত? মনীশ শুক্লা হত্যাকাণ্ডে এবার রাজ্য সরকারের কাছে রিপোর্ট তলব করল কলকাতা হাইকোর্ট। কোন পথে এগোচ্ছে তদন্ত, বুধবার সেই সংক্রান্ত রিপোর্ট জমার দেওয়ার নির্দেশ দিল বিচারপতি সঞ্জীব বন্দ্যোপাধ্যায়ের ডিভিশন বেঞ্চ। 

আরও পড়ুন: তীব্র বিস্ফোরণে কেঁপে উঠল ক্লাবঘর, সাত সকালে আতঙ্ক ছড়াল বেলেঘাটাতে

দীর্ঘ রাজনৈতিক জীবনে দল বদলেছেন বারবার, কিন্তু এলাকায় প্রভাব কমেনি এতটুকু। লোকসভা ভোটের ফলপ্রকাশের পর তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দেন মণীশ শুক্লা। ৪ অক্টোবর টিটাগড় থানার সাংসদ অর্জুন সিং-এর ঘনিষ্ট এই নেতাকে গুলি ঝাঁঝরা করে দেয় দুষ্কৃতীরা। সেদিনই কলকাতার একটি হাসপাতালে মারা যান মণীশ। সিবিআই তদন্তের আর্জি জানিয়ে কলকাতা হাইকোর্টে জনস্বার্থ মামলা করেছেন প্রিয়াঙ্কা তিব্রেয়াল নামে এক আইনজীবী। মামলাকারী বক্তব্য, স্রেফ রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বই নন, মনীশ শুক্লা পেশায় আইনজীবী ছিলেন। সিআইডি  তদন্ত করলে, স্বচ্ছতা থাকবে না। প্রকৃত দোষীদের খুঁজে বের করার জন্য় সিবিআই তদন্ত প্রয়োজন। সেই মামলার শুনানিতেই তদন্তে গতিপ্রকৃতি নিয়ে রাজ্য সরকারে কাছে রিপোর্ট তলবব করল আদালত। 

আরও পড়ুন: বন্দিদশাতেও সচল ফেসবুক অ্যাকাউন্ট, মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে ছবি পোস্ট বিজেপি নেতার

উল্লেখ্য়, মণীশ শুক্লা খুনের তদন্তভার সিআইডিকে দিয়েছে রাজ্য সরকার। তদন্তে নেমে এখনও পর্যন্ত তিনজন অভিযুক্তকে গ্রেফতার করেছেন রাজ্য গোয়েন্দা সংস্থার আধিকারিকরা। প্রাথমিক তদন্তে অনুমান, পুরানো বিবাদের জেরে খুন করা হয়েছে ব্যারাকপুর শিল্পাঞ্চলের 'বাহুবলী' নেতা।