পদ্মশ্রী প্রাপক ও সমাজসেবী মৃন্ময়ী রায়ের টাকায় গড়ে ওঠা হাসপাতালের দুই চিকিৎসকের আর্জিতে সাড়া দিল কলকাতা হাইকোর্ট। মানিকতলার রাজা দীনেন্দ্র স্ট্রিটের জে এন রায় শিশু সেবা ভবন হাসপাতালের সঙ্গে মউ চুক্তি সাক্ষরকারী সংস্থা শোভনা ফাউন্ডেশনের লাইসেন্স অবৈধ বলল কলকাতা হাইকোর্ট। বৃহস্পতিবার বিচারপতি সব্যসাচী ভট্টাচার্য রাজ্য সরকারকে নির্দেশ দিয়েছেন, অবিলম্বে ওই সংস্থাকে দেওয়া নতুন লাইসেন্সটি বাতিল করতে।

লাভপুর হত্যাকাণ্ডে সাময়িক স্বস্তি, ২ মার্চ সিউড়িতে হাজিরা মুকুলের

পদ্মশ্রী পুরস্কারে ভূষিত সমাজসেবী মৃন্ময়ী রায় তাঁর ছেলের স্মৃতিতে ১৯৬২ সালে মানিকতলায় জে এন রায় শিশু সেবা ভবন হাসপাতাল গড়ে তোলেন। ২০০৯ সাল থেকে হাসপাতালে অর্থনৈতিক সংকট শুরু হয়। ২০১৬ সালে হাসপাতালের ট্রাস্টি বোর্ড শোভনা মেডিক্যাল  ফাউন্ডেশনের সঙ্গে মউ চুক্তি করার সিদ্ধান্ত নেয় যাতে হাসপাতাল ভালো ভাবে পরিষেবা দিতে পারে। জঙ্গলমহলের এই 'ফরেস্টম্য়ান' সারাটা জীবন রাত জেগে থাকতেন, 'জঙ্গলে আগুন লাগতো না তো'

কিন্তু ২০১৯ সালে জানা যায়, রাজ্যের ক্লিনিক্যাল এস্টাবলিশমেন্ট অ্যাক্টের মাধ্যমে হাসপাতালটির নতুন লাইসেন্স পায় শোভনা মেডিক্যাল ফাউন্ডেশন। এর বিরুদ্ধেই হাসপাতালের দুই চিকিৎসক নীহার ঘোষ এবং তরুণ পালিত হাইকোর্টে মামলা করেন। তাদের আইনজীবী বলেন, কীভাবে একটি হাসপাতালের দুটি লাইসেন্স হতে পারে? এছাড়া শুধুমাত্র মউ চুক্তি সাক্ষর হয়েছিল ওই সংস্থার সঙ্গে। লাইসেন্স বদলের কোন সিদ্ধান্ত হয়নি। তাহলে কীভাবে ওই সংস্থা লাইসেন্স পায়? 

অমিত শাহ ঢুকলেই কালো পতাকা, গো-ব্যাক স্লোগানের প্রস্তুতি নিচ্ছে সিপিএম

কোর্ট বলে, হাসপাতালের নতুন লাইসেন্স সম্পূর্ণ অবৈধ। শোভনা মেডিকেল ফাউন্ডেশনের লাইসেন্স বাতিল করার নির্দেশ দেন বিচারপতি।