Asianet News Bangla

'আমাকে ফাঁসানো হচ্ছে', জ্ঞানেশ্বরী কাণ্ডে নিজাম প্যালেসে ধৃত অমৃতাভ

  • সোমবার অমৃতাভ-র ঘরে তল্লাশি চালায় আধিকারিকরা 
  •  এদিন নিজাম প্যালেসে  অমৃতাভকে আনা হয়েছে
  • 'আমাকে ফাঁসানো হচ্ছে,রেলকর্তা জিজ্ঞাসা করুন' 
  •  এদিন সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখী হয়ে অমৃতাভ চৌধুরী 
CBI has summoned Amritabh Chowdhury to Nizam Palace due to fraudulent in Jnaneswari Accident RTB
Author
Kolkata, First Published Jun 21, 2021, 2:10 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp


জ্ঞানেশ্বরী কাণ্ডে রেলের সঙ্গে প্রতারণার  অভিযোগে ধৃত অমৃতাভ চৌধুরীকে নিজাম প্যালেস জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আনা হয়েছে। এদিন অমৃতাভ চৌধুরী সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখী বলেছেন, 'আমাকে ফাঁসানো হচ্ছে। রেলের আধিকারিকদের জিজ্ঞাসা করুন' বিস্ফোরক মন্তব্য অমৃতাভ চৌধুরীর।

আরও পড়ুন, শুধু ক্ষতিপূরণ নয়, চাকরিও হাতিয়ে ছিল জ্ঞানেশ্বরী রেল দুর্ঘটনায় 'মৃত' অমৃতাভ, তদন্তে CBI 

 

 

সোমবার নিজাম প্যালেসে তলব করেছে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা দুর্নীতি দমন। এমনকি রেলকে প্রতারণা করা এই ব্যক্তি অমৃতাভ চৌধুরী কিনা তার তদন্ত করতে, জোড়া বাগানে তার প্রতিবেশীদের এদিন জিজ্ঞাসাবাদ করছে সিবিআই আধিকারিকরা, এমনটাই সূত্রের খবর। এদিন অমৃতাভ চৌধুরী ঘরে তল্লাশি চালায় আধিকারিকরা। তার পুরোনো ছবি সংগ্রহ করে বাড়ির মালিকের সঙ্গে কথা বলেছে সিবিআই আধিকারিকরা। উল্লেখ্য, ২০১০ সালে ২৮ শে মে জ্ঞানেশ্বরী এক্সপ্রেস দুর্ঘটনায় মৃত্যু হয় প্রায় দেড়শো জনের। সেখানে জীবিত থাকা অমৃতাভকে মৃত হিসেবে দেখিয়ে ভুয়ো তথ্য দিয়ে ক্ষতিপূরণের টাকা এবং চাকরি নেওয়ার অভিযোগ ওঠে অমিতাভ ও তাঁর বাবার বিরুদ্ধে। শুক্রবার রাতে তাদের আটক করে সিবিআই। যদি এই অমৃতাভ চৌধুরী নয়। যদিও তার বাবা এই ভূয়ো তথ্য স্বীকার করে নিয়েছেন বলে জানা গেছে সিবিআই সূত্রে।

আরও পড়ুন, হানকে বলা যাবে না 'গুপ্তচর', ভিয়েনা কনভেনশন মেনে চলতে হবে, সাফ জানাল চিন 

 

প্রসঙ্গত , জ্ঞানেশ্বরী রেল দুর্ঘটনা কাণ্ডে মৃত সেজে সরকারের থেকে ক্ষতিপূরণ নেওয়া শুধু তাই নয়, নিজের বোনের চাকরিও হাতিয়ে ছিল জোড়াবাগান এলাকার বাসিন্দা অমৃতাভ চৌধুরী ওরফে সাগর চৌধুরী। গত কয়েকদিন ধরেই চাঞ্চল্যকর মোড় উঠে এসেছে  সিবিআই এর তদন্তে। মন্তেশ্বরের তাঁর পৈতৃক ভিটের সঙ্গে তাঁর যোগাযোগ গত কয়েক বছর ধরে। খাতায় কলমে নিজেকে মৃত দেখিয়ে মন্তেশ্বরের বামুনপাড়া এলাকায় তার পৈতৃক ভিটেয় অবাধ আনাগোনা ছিল অমৃতাভ চৌধুরী। শুধু তাই নয় মন্তেশ্বরের কমারশাল এলাকায়  প্রোমোটিংয়ের ব্যবসাও ফেঁদে বসেছিল অমৃতাভ। নিজের বানানো চারতলা আবাসনের নিচের তলায় তিনটি দোকানকে চড়া দামে স্থানীয় তিন ব্যবসায়ীকে  বিক্রি করেছে সে ও তাঁর বাবা। 
 

আরও পড়ুন, উত্তরবঙ্গ ভেঙে পৃথক রাজ্যের দাবি, 'ষড়যন্ত্র'-র অভিযোগে BJP সাংসদের বিরুদ্ধে FIR  

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios