তরুণীর মৃত্যুতে করোনা-আতঙ্ক ছড়াল  উত্তর কলকাতায়। এ খবর জানতে পেরে ঘরের দরজা বন্ধ করে ভিতরে ঢুকে যান প্রতিবেশীরা। মেয়ের দেহ আগলে একা বসে থাকেন অসহায় মা। মর্মান্তিক এই ঘটনাটি ঘটেছে  টালা থানা এলাকায়। খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে দেহ আর জি কর হাসপাতালে নিয়ে যায়। 

আরও পড়ুন, ফুটপাতে রোগী ফেলে পালানোর চেষ্টা পিপিই বেশধারী স্বাস্থ্যকর্মীদের, দেখুন ভিডিও


এক নম্বর বরোর চেয়ারম্যান তরুণ সাহা জানিয়েছেন, বৃহস্পতিবার তাঁর কাছে খবর আসে, এক তরুণীর মৃত্যুতে এলাকায় করোনা আতঙ্ক ছড়িয়েছে। এরপর পুলিশকে নিয়ে তিনি সেখানে যান। মৃতার মায়ের সঙ্গে কথা বলে জানতে পারেন, অসুস্থতা বশত ৩ বছরের উপরে ওই তরুণী হাঁটতে পারতেন না। এ দিন সকালে তিনি ঘুম থেকে উঠছে না দেখে ডাকতে গিয়ে মা বুঝতে পারেন মেয়ের শরীরে কোনও সাড় নেই। এদিকে এই খবর প্রকাশ্য়ে আসতেই প্রতিবেশীদের মধ্যে করোনা-আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। ঘরের দরজা বন্ধ করে ভেতরে ঢুকে যান প্রতিবেশীরা।

আরও পড়ুন, সাগর দত্ত মেডিক্যালে করোনা আক্রান্ত ২ সাফাই কর্মী, ২০ জন চিকিৎসক সহ ৩৬ জন কোয়ারেন্টিনে


অপরদিকে,  মৃতদেহটি ময়না-তদন্ত ইতিমধ্য়েই করা হয়েছে। তার রিপোর্ট এলেই  ওই তরুণীর মৃত্যুর আসল কারণ জানা যাবে। তবে জানা গিয়েছে, ওই তরুনীর শরীরে প্রাথমিক ভাবে করোনা উপসর্গ অর্থাৎ কাশি-জ্বর-শ্বাসকষ্টের কোনও লক্ষণ ছিল না। 

 

আরও পড়ুন, আগামী ৪৮ ঘন্টায় আছড়ে পড়বে ভয়ানক ঘূর্ণিঝড় '‌আমফান', সঙ্গে অতিভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস

 

 

রাজ্য়ে একাধিক করোনা রিপোর্ট 'ফলস' নেগেটিভ, কী বলছেন চিকিৎসকরা

রিপোর্ট 'নেগেটিভ' -পাঠানো হল বাড়ি, ভূল থাকায় ফের ডাক, বাঙ্গুর হাসপাতালে মৃত্যু করোনা আক্রান্তের

স্ক্রিন ছুঁয়েই প্রিয় জনের অনুভূতি, করোনা রুখতে শহরের হাসপাতালে চালু 'ভারচুয়াল ভিজিটিং আওয়ার্স'

এবার বেসরকারিতেও করোনা চিকিৎসায় মিলবে বিনামূল্য়ের পরিষেবা, হাস