করোনার আক্রান্তের ক্রমশ বাড়ছে রাজ্যজুড়ে। যার জন্য় সরকারের তরফে একাধিক স্বাস্থ্য়বিধি মেনে চলতে বলা হচ্ছে। পাশাপাশি চলছে জীবাণু মুক্তের কাজ। রবিবার রাজারহাটের কোয়ারেন্টিন সেন্টারে  দমকলের মাধ্যমে দীর্ঘ সময় ধরে জীবাণুনাশক ছড়ানো হয়েছে।

আরও পড়ুন, করোনা মোকাবিলায় বিপুল খরচ, নতুন নিয়োগ বন্ধের সিদ্ধান্ত রাজ্যের
 

জানা গিয়েছে, রবিবার দমকলের মাধ্যমে জীবাণুনাশক ছড়ানো হয়েছে রাজারহাটের কোয়ারেন্টিন সেন্টারে। প্রত্যেকটা ঘরে গিয়ে স্যানিটাইজ করার কাজ চালানো হয়েছে। দফায় দফায় এই কাজ করা হবে বলে দমকলের তরফে জানানো হয়েছে। রাজারহাটের এই কোয়ারেন্টিন সেন্টারে এই মুহূর্তে রয়েছেন ১৫০ জন। আর তাদের প্রত্য়েকেই স্বাস্থ্য় সুরক্ষা দিতেই রাজ্য়ের তরফে এই সতর্কতামূলক পদক্ষেপ। প্রসঙ্গত, কিছুদিন আগে নদিয়ার তেহট্টের পলাশীপাড়ার বার্ণিয়ায় করোনা পজিটিভ রোগীদের পাড়ায় জীবাণুমুক্তকরণে 'জেট-স্প্রে' গাড়ি পাঠিয়েছিল কলকাতা পৌরসভা।  জীবাণুনাশক সোডিয়াম হাইপো ক্লোরাইড রাসায়নিক নিয়েই তেহট্টে পৌছে গিয়েছিলেন পৌরসভার অফিসার ও বিশেষজ্ঞরা। 

আরও পড়ুন, 'জনসংখ্য়ার অনুপাতে করোনা আক্রান্তের সংখ্য়া অনেক কম', অভয় বার্তা দিলেন চিকিৎসক কুনাল সরকার


উল্লেখ্য়, দেশে ৩০০০ ছাপিয়ে গেল নভেল করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা। গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৪৭২ জন। মৃত্যু সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৭৭। সুস্থ হয়ে উঠেছেন ২৬৭ জন। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের রিপোর্ট অনুযায়ী, আক্রান্তের সংখ্যায় এখনও পর্যন্ত শীর্ষস্থানে রয়েছে মহারাষ্ট্র। সেখানে আক্রান্ত হয়েছেন ৪৯০ জন। মৃত্যু হয়েছে ২৪ জনের। আক্রান্তের সংখ্যার নিরিখে দেশের মধ্যে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে তামিলনাড়ু। সেখানে আক্রান্তের সংখ্যা ৪৮৫। অন্য দিকে, দিল্লিতেও প্রতি দিন বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা। সেখানে আক্রান্তের সংখ্যা ৪৪৫। সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ২১৩ জন। পাশাপাশি রাজ্যে করোনায়  আক্রান্ত  ১১ জন। রাজ্যে মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৪৯ জন। শনিবার নবান্নে সাংবাদিক সম্মেলনে জানালেন মুখ্যসচিব। 

 

 রাজ্য়ে করোনায় আক্রান্ত এবার এক নার্স, পরিবারকে কোয়ারেনটাইনে থাকার নির্দেশ স্বাস্থ্য দফতরের

করোনা আক্রান্তদের এমআর বাঙ্গুরে স্থানান্তর ঘিরে তুলকালাম, অভিযোগ নিয়ে অবস্থান বিক্ষোভে নার্সরা

পাঁচিল টপকালেই ভাইরাস এক্সপার্ট সেন্টার, তবুও মুখ ফিরিয়ে মেডিক্য়াল কলেজ