ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রোর শুরু হওয়ার কথা ডিসেম্বরেই,  তেমনটাই জানিয়েছিলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়। তিনি জানিয়েছিলেন ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রোর প্রথম পর্যায়ে, করুণাময়ী, সেন্ট্রাল পার্ক ,সিটি সেন্টার, বেঙ্গল কেমিক্যাল ও সল্টলেকে স্টেডিয়াম- এই ছয়টি স্টেশনে পরিষেবার শুরু প্রস্তুতি চূড়ান্ত। কিন্তু বড়দিন  দোড়গোড়ায়, আর ডিসেম্বরের হাতে গোনা কটা দিন মাত্র বাকি। ঠিক এই সময়ে    ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রোর বর্তমান পরিস্থিতি ঠিক কী, তা একটু বিস্তারিত জেনে নেওয়া যাক। 

আরও পড়ুন, আসছে বড়দিন, সেজে উঠছে কলকাতার বুকে সেরা পাঁচ চার্চ


বর্তমানে ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রোর পশ্চিমমুখী বা হাওড়ামুখী সুড়ঙ্গে গত ৩১ অগাষ্ট বৌবাজারের কাছে দুর্ঘটনা ঘটে সুরঙ্গে জল ঢুকতে শুরু করে। ওই সুরঙ্গে খনন যন্ত্র টিবিএম 'চন্ডী' আটকে আছে এখন দুর্গা পিতুরি লেন এবং সেকরাপাড়া লেনের মধ্য়ে। পাশের পূর্বমুখী সুরঙ্গ নির্মল চন্দ্র স্টিটের মুখে পৌছেছে। সেখান থেকে ডান দিকে বাঁক নিয়ে বৌবাজারের দিকে যাবে। পূর্বমুখী সুরঙ্গে আটকে আছে টিবিএম 'উর্বী'। তাকে এগিয়ে  নিয়ে গিয়ে শিয়ালদহ পর্যন্ত পূর্বমুখী সুরঙ্গের কাজ শেষ করা হবে। তারপরে শিয়ালদহ থেকে বৌবাজারের দিকে সুরঙ্গ খুঁড়ে চন্ডীর অসম্পর্ণ কাজ শেষ করা হবে। 

আরও পড়ুন, বর্ষ শেষে জানান দিল শীত, কলকাতার তাপমাত্রা এখনও স্বাভাবিকের নিচে

গত আগস্ট মাসেই কলকাতায় ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রোর প্রথম পর্যায়ে পরিষেবা উদ্বোধনের ছাড়পত্র দিয়েছিল কমিশনার অফ রেলওয়ে সেফটি বা সিআরসি। নির্মাকারী সংস্থা ঘোষণা করেছিল, ৭ নভেম্বর সল্টেলেক সেক্টর ৫ থেকে স্টেডিয়াম পর্যন্ত প্রথম পর্যায়ে বাণিজ্যিকভাবে ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রোর পরিষেবা উদ্বোধন হবে। এমনকী, তিন  দিন ধরে নির্দিষ্ট ওই রুটে মেট্রো চলাচলের মহড়াও চলে। মহড়া চলাকালীন মেট্রোর আধিকারিকরাই যাত্রীদের মতো টোকেন পাঞ্চ করে ট্রেনে ওঠেন, আবার গন্তব্যে পৌঁছানোর পর স্টেশন ছেড়ে বেরিয়ে যান। এতকিছুর পরে কিন্তু ৭ নভেম্বরে সেক্টর ৫ থেকে স্টেডিয়াম পর্যন্ত মেট্রো মেট্রো পরিষেবার উদ্বোধন হয়নি। তারপরেও গোটা একটা মাস কেটে গেছে, বর্ষ বিদায়ের আগে কলকাতা কী পাবে  ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রো, প্রশ্ন সবার চোখেই।