দেখে জিভে জল এলেও সম্প্রতি অনেকেই ভয়ের কারণে পিছিয়ে যান। তবে এবার সেই ভোজনরসিক স্বাস্থ্য় সচেতন শহরবাসীদের জন্য় সুখবর।কলকাতা শহরের স্ট্রিট ফুড নিরাপদে খেতে পারেন। কারণ, এখন এই খাবারগুলি ওনেক বৈজ্ঞানিক পদ্ধতি ও পরিস্কার। স্ট্রিট ফুড নিয়ে কলকাতা পুরসভার এক সমীক্ষায় এমনই জানানো হয়েছে।

আরও পড়ুন, উত্তরবঙ্গে চলবে বৃষ্টি, দক্ষিণবঙ্গে কাল থেকে বাড়বে তাপমাত্রা

সূত্রের খবর, কলকাতার স্ট্রিট ফুড নিয়ে 'হু' অর্থাৎ 'ওয়ার্ল্ড হেল্‌থ অর্গানাইজেশন', রাজ্য স্বাস্থ্য এবং পুর স্বাস্থ্য দফতর যৌথভাবে এক সমীক্ষা চালায়। সেই সমীক্ষার রিপোর্ট নিয়ে রাজ্য স্বাস্থ্য দফতর, পুর স্বাস্থ্য দফতরের পদস্থ আধিকারিকদের নিয়ে বৈঠক করেন কলকাতার ডেপুটি মেয়র তথা মেয়র পারিষদ (‌স্বাস্থ্য)‌ অতীন ঘোষ। এই বৈঠকে ছিলেন ' হু' -এর প্রোজেক্ট কো-অর্ডিনেটর ইন্দিরা চক্রবর্তী। 

 

 

আরও পড়ুন, কেটে গেল জট, ১ মার্চ শহিদ মিনারে সভা অমিত শাহের

ডেপুটি মেয়র জানান,  অন্যান্য রাজ্যের স্ট্রিট ফুডের থেকে কলকাতার স্ট্রিট ফুড অনেক বেশি নিরাপদ। সমীক্ষা রিপোর্টই তাই বলছে। একশো শতাংশ নিরাপদ না হলেও এখন রাস্তার খাবারের মান বেড়েছে। এই অর্থনৈতিক অবস্থায় যতটা সচেতন থাকা সম্ভব, কলকাতার রাস্তার খাবার ততটাই সুরক্ষিত। রাস্তার খাবারকে স্বাস্থ্য সম্মত করে তুলতে পুরসভার ফুড সেফটি অফিসারদের নিয়ে ১৬টি মোবাইল দল তৈরি করা হয়েছে। ১৬টি জোনে ভাগ করে অভিযান চালানো হয়। মোবাইল সার্ভে করা হচ্ছে বলেও জানান অতীন ঘোষ।

আরও পড়ুন, পুলকার দুর্ঘটনা কেড়েছে সন্তানকে, ঋষভের বাবাকে ফোন মুখ্যমন্ত্রীর