শহর কলকাতায় ফের বিধ্বংসী আগুন। কিছু দিন আগে উল্টোডাঙার একটি গুদামে আগুন লেগেছিল। এবার বড়সড় অগ্নিকান্ডে পুড়ে ছাই আনন্দপুরের একটি প্লাস্টিকের গোডাউন। খবর পেয়েই ঘটনাস্থলে পৌছোয় দমকলের ১১টি ইঞ্জিন৷  এই ঘটনায় এলাকায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে৷  অবশ্য় দমকলের দাবি, এখন আগুন পুরোটাই নিয়ন্ত্রণে আনা হয়েছে। 

আরও পড়ুন, বাজেটে সোনার গয়নায় আমদানি শুল্ক কমার সম্ভাবনা, লাভের আশায় শহরের ব্য়বসায়ীরা


শনিবার ভোরে, আচমকাই প্লাস্টিকের গুদাম থেকে কালো ধোঁয়া নির্গত হতে দেখেন স্থানীয়রা। তীব্র আতঙ্কে এলাকার সকলে বাড়ির বাইরে বেরিয়ে আসেন। আগুন দ্রুত ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কায় ওই জায়গা ছেড়ে যাওয়ার জন্য় চাঞ্চল্য় ছড়িয়ে পড়ে। ততক্ষণে গোটা গুদামটিতেই ভয়াবহভাবে আগুন ছড়িয়ে পড়েছে। স্থানীয়রাই খবর দেন দমকলে। ঘটনাস্থলে আসে দমকলের ১১টি ইঞ্জিন। প্রায় একঘণ্টার চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রনে আনেন দমকলের দায়িত্বশীল কর্মীরা।স্থানীয়দের অভিযোগ, বহুদিন ধরে বেআইনিভাবে চলছিল ওই গুদাম। স্থানীয় প্রশাসনকে বহুবার বলেও কোনও ফল পাওয়া যায়নি।  অভিযোগ, গুদামে কোনও অগ্নিনির্বাপণ ব্যবস্থা ছিল না বলেই এই ভয়াবহ অগ্নিকান্ড হয়েছে। যার ফলে পাশাপাশি বাড়ি গুলিতেও আগুন ধরার প্রবল সম্ভাবনা ছিল।

আরও পড়ুন, শহরে ফিরল শীতের আমেজ, তাপমাত্রার পারদ নামল ১৩ ডিগ্রিতে

সূত্রের খবর, এখনও কুলিং প্রসেস চলছে। দমকলকর্মীদের মতে, গুদামের সর্বত্র ছিল প্লাস্টিক ও রবারের জিনিসপত্র। এমনকী গুদামের বাইরেও প্লাস্টিকের জিনিস থাকায় সহজেই ছড়িয়ে পড়ে আগুন। তাই গুদামের ভিতরে ফায়ার পকেট থাকার সম্ভাবনাও উড়িয়ে দেওয়া যাচ্ছে না। কীভাবে ওই গুদামে আগুন লাগল তা নিয়ে ধোঁয়াশা তৈরি হয়েছে।