ফের ঘণীভূত হচ্ছে প্রবল ঝড় বৃষ্টির  আশঙ্কা। বাংলাদেশ ও বিহারে রয়েছে এই ঘূর্ণাবর্ত। এই জোড়া ঘূর্ণাবর্তের টানে প্রচুর জলীয়বাষ্প ঢুকছে বঙ্গে। যার প্রভাবেই বজ্রগর্ভ মেঘ থেকে ঝড়-বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে রাজ্য়ে। আগামী ৭২ ঘণ্টায় কলকাতা, দুই ২৪ পরগণার একাদিক জায়গায় রয়েছে কালবৈশাখীর সম্ভাবনা।

শহরের শ্মশানভূমি ঘিরেই যাঁদের জীবিকা, লকডাউনে তাঁদের রোজগারেও পড়েছে কোপ.

আজ সকাল থেকেই কলকাতায় আংশিক মেঘলা আকাশ।  হালকা ঝড়-বৃষ্টির সম্ভাবনা। তবে হাওয়া অফিস বলছে ঝড়বৃষ্টির সম্ভাবনা বাড়বে কাল ও পরশু।এমনই পূর্বাভাস দিয়েছে আবহাওয়া দফতর। বৃহস্পতিবার কলকাতার তাপমাত্রা স্বাভাবিকের নীচে । সকালে মহানগরের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৪.৬ ডিগ্রি । গতকাল সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩২.১ ডিগ্রি সেলসিয়াস । বাতাসে জলীয় বাষ্পের পরিমাণ ৫৭ থেকে ৯১ শতাংশ।

'টিকিয়াপাড়ার' মতো ঘটনা কাম্য় নয় , মুখ্য়সচিবকে কড়া চিঠি কেন্দ্রের.

আগামী সোমবার পর্যন্ত দক্ষিণবঙ্গে ঝড় বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। তবে শুক্র ও শনিবারে ঝড় বৃষ্টির সম্ভাবনা বেশি। বেশ কিছু জেলায় কালবৈশাখীর পূর্বাভাস রয়েছে আগামী ৭২ ঘণ্টায়। ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে মুর্শিদাবাদ নদিয়া বীরভূম পূর্ব বর্ধমান হাওড়া হুগলি উত্তর ও দক্ষিণ ২৪ পরগনা ও কলকাতায়। আগামী ২৪ঘণ্টায় উত্তরবঙ্গে বিক্ষিপ্তভাবে ঝড় বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। 

রাজ্য়ে করোনা আক্রান্তের অর্ধেকের বেশি কলকাতার,৭০০ থেকে একদিনে ৭৫৪

শুক্র ও শনিবার ঝড় বৃষ্টির সম্ভাবনা কম উত্তরবঙ্গে। রবিবার থেকে ফের ঝড় বৃষ্টির সম্ভাবনা বাড়বে উত্তরবঙ্গে। নতুন করে পশ্চিমী ঝঞ্ঝার ঢুকবে শনিবার উত্তর-পশ্চিম ভারতের রাজ্যগুলিতে। তবে আন্দামান সাগরে নিম্নচাপ ঘূর্ণাবর্তের পরিণত শক্তি হারিয়েছে। এর কারণে কোনও সতর্কবার্তা নেই আন্দামান ও নিকোবরে।