'বাংলায় গণতান্ত্রিক পরিবেশ না থাকলে ৩৫৬ ধারা জারির পরিস্থিতি আসবে'। বিজেপির রাজ্য সভাপতির এই বিস্ফোরক মন্তব্য়েই তোলপাড় রাজ্য। ক্রমশ বাড়ছে জল্পনা।  এদিকে বৃহস্পতিবার দিল্লিতে গিয়ে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের সঙ্গে দেখা করছেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়।

 

 

আরও পড়ুন, সুব্রতকে সরিয়ে সাধারণ সম্পাদক অমিতাভ, বাংলা বিজেপির সাংগঠনিক পদে বড়সড় রদবদল

রাজ্যের ক্ষেত্রে কতটা যুক্তি যুক্ত রাষ্ট্রপতি শাসন

আইন শৃঙ্খলা ইস্যুতে মমতার সরকারের বিরুদ্ধে একাধিক নালিশ জানিয়েছেন  রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়। এদিকে তারপর পরই 'বাংলায় গণতান্ত্রিক পরিবেশ না থাকলে ৩৫৬ ধারা জারির পরিস্থিতি আসবে এবং পরিস্থিতির উপর নির্ভর করবে রাষ্ট্রপতি শাসন'। দিলীপের এমন মন্তব্যে ক্রমশ বাড়ছে জল্পনা। জল কোন দিকে গড়াবে তা নিয়ে হইচই রাজনৈতিক মহলে। প্রশ্নও উঠেছে রাজ্যের ক্ষেত্রে কতটা যুক্তি যুক্ত রাষ্ট্রপতি শাসন।

আরও পড়ুন, 'তৃণমূলকে সরাতে সবকিছু করতে রাজি', পদত্যাগ করেও ফিরে এলেন সৌমিত্র খাঁ

 

 

কী অপেক্ষা করছে বাংলায়

 বিজেপির অভিযোগকে ঢাল বানিয়েই ইতিমধ্যেই কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিতশাহকে রাজ্যের বিরুদ্ধে একাধিক অভিযোগ এনেছেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়। এদিকে এই দিনই মন্তব্য করেছেন দিলীপ ঘোষ। যা রাজ্য-রাজনীতিতে যথেষ্ট প্রভাব ফেলেছে। তবে দীর্ঘদিন ধরে চলে আসা রাজ্যপালের আনা অভিযোগ, রেশন দুর্নীতি থেকে বাংলায় আলকায়দা জঙ্গি পাকড়াও এর পর রাজ্যপালের দিল্লি যাওয়ার পর কী অপেক্ষা করছে বাংলায়, তা সময়ই বলবে।