আর মাত্র কয়েকটা দিনের অপেক্ষা, তারপরেই উমা সপরিবারে হাজির হবেন মর্ত্যে। সারা বছর ধরে অধীর আগ্রহে মানুষ অপেক্ষা করে থাকেন দুর্গা পুজোর জন্য। তার মধ্যে কলকাতার পুজো-কে ঘিরে উন্মাদনা থাকে আরও তুঙ্গে। থিম পুজোর দৌড়ে কম বেশী এগিয়ে সব ক্লাবই। প্রতি বছরের মতো এবছর ও কলকাতার উল্লেখ্যযোগ্য ক্লাবগুলি থিম পুজোর প্রস্তুতি শুরু করে দিয়েছে। উত্তর কলকাতার ক্লাবগুলির মধ্যে এবছরও নতুন ভাবনা নিয়ে এসেছে হরিঘোষ স্ট্রিট সার্বজনীন দূর্গোৎসব সমিতি। প্রতি বছরের মতো এ বছরও তারা ভিন্ন স্বাদের থিম নিয়ে হাজির হয়েছে।

আরও পড়ুন- দেবী এখানে কেশবর্ণা, এমনই চিরাচরিত রীতি বহন করে চলেছে বেলেঘাটার ভট্টাচার্য পরিবার
 
গত বছর হরিঘোষ স্ট্রিট -এ দেখা গিয়েছিল ফুলের সাজে মা -কে। মন্ডপ থেকে শুরু করে মা, সবার সাজেই ছিল ফুলের ছোঁয়া। মন্ডপের সেই অসাধারণ সাজসজ্জা নজর কেড়েছিল সকলের। এবছরও তারা নতুন এক ভাবনা নিয়ে হাজির হচ্ছে। এবছর সেখানকার থিম বর্ণপরিচয়।

আরও পড়ুন- নাম লেখাননি এখনও, দেরি না করে অংশ নিন এশিয়ানেট নিউজ শারদ সম্মান ২০১৯-এ

বাংলার নব জাগরণের অন্যতম প্রবাদ পুরুষ ঈশ্বরচন্দ্র রচনা করেছিলেন জনপ্রিয় শিশুপাঠ্য বর্ণপরিচয়। সেই বর্ণপরিচয়ের হাত ধরেই বলা যায় বাংলা ভাষায় হাতেখড়ি হয়। বর্ণপরিচয় -এর সার্ধশতবর্ষ পরেও এর কোনও এর বিকল্প নেই। বিদ্যাসাগর আজও বাংলার ঘরে ঘরে বর্ণপরিচয় -এর মধ্যে দিয়ে শিক্ষার প্রথম আলো জ্বালিয়ে যাচ্ছেন। আর সেটাই উঠে আসছে তাদের মন্ডপ সজ্জার মধ্যেদিয়ে। এই অসাধারণ এক পরিকল্পনা চাক্ষুষ করতে হলে একবার যেতেই হবে হরিঘোষ স্ট্রিটে। তার জন্য আর মাত্র কটা দিনের অপেক্ষা। তার পরেই দেখতে পাবেন এই অসাধারণ এক মন্ডপ সজ্জা। ১৫ হরিঘোষ স্ট্রিট, হেদুয়া পার্কের কাছেই এই হরিঘোষ স্ট্রিট সার্বজনীন দূর্গোৎসব সমিতি। আর সেখানে গেলেই দেখা মিলবে ছোটো বেলার সেই বর্ণপরিচয়ের।