Asianet News BanglaAsianet News Bangla

মমতার মুখ ফসকে টাটার নাম? জলপাইগুড়িতে আসল বিনিয়োগ কোকা-কোলার

 মুখ্যসচিব হরেকৃষ্ণ দ্বিবেদী জানান 'জলপাইগুড়ির রানিনগরে বিনিয়োগ করছে করছে কোকাকোলা। মুখ্যমন্ত্রী টাটার কথা বলতে চাননি।' যদিও মুখ্যমন্ত্রী বলেছিলেন জলপাইগুড়িতে বিনিয়োগ করছে টাটারা।

Mamata Banerjee wrongly announced Tata s name as an investor it is Coca-Cola invests 600 crores in Jalpaiguri BSM
Author
First Published Sep 13, 2022, 10:50 AM IST

সকালের উচ্ছ্বাস বিকেলেই বদলে গিয়েছিল। কারণ সোমবার নেতাজি ইন্ডোরে অনুষ্ঠানে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ঘোষণা করেছিলেন  রাজ্যের বিনিয়োগ করছেন টাটা গ্রুপ। তিনি আরও জানিয়েছিলেন ৬৬০ কোটি টাকা বিনিয়োগ করছে। ২০০৭ সালের তিক্ত অভিজ্ঞতা নিয়ে টাটারা এই রাজ্য ছেড়েছিল। তারপর মুখ্যমন্ত্রীর ঘোষণায় রাজ্যের মানুষ নতুন করে কর্মসংস্থার আর উন্নয়নের স্বপ্ন দেখতে শুরু করেছিলেন। বিশেষত উত্তরবঙ্গ। কারণ মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছিলেন জলপাইগুড়ির রানিনগরেই একটি ইউনিট তৈরি করছে টাটা। কিন্তু সন্ধ্যে বেলাই রাজ্য প্রশাসন ভুল শুধরে দেয়। জানিয়ে দেয় টাটা নয়, বিনিয়োগ করেছে কোকা-কোলা।

 মুখ্যসচিব হরেকৃষ্ণ দ্বিবেদী জানান 'জলপাইগুড়ির রানিনগরে বিনিয়োগ করছে করছে কোকাকোলা। মুখ্যমন্ত্রী টাটার কথা বলতে চাননি।' যদিও মুখ্যমন্ত্রী বলেছিলেন জলপাইগুড়িতে বিনিয়োগ করছে টাটারা। সেখানে ৬৬ শতাংশ মহিলা চাকরি পাবেন। যদিও অনুষ্ঠানে উপস্থিত কোকা-কোলার এক আধিকারিক জানান তাঁদের সংস্থা ৬৬০ কোটি টাকা বিনিয়োগ করেছেন। কারখানার বিশেষত্ব হল সেখানে ৬৬ শতাংশ মহিলা চাকরি পাবেন। সফট ড্রিঙ্কস তৈরি হবে। 

হিন্দুস্থান কোকাকোলা বেভারেজস সংস্থা নরম পানীয় কারখানা তৈরি করছেন। এর আগে সংস্থার পক্ষ থেকে রাজ্যে ১ হাজার কোটি কোটা বিনিয়োগ করে দুটি কারখানা তৈরি করা হয়েছিল। দুটি কারখানায় ১ হাজার জনের চাকরি হয়েছে। জলপাইগুড়িতে ৬.৯ একর জামির ওপর কারখানা তৈরি হবে।  নতুন কারখানায় প্রতি মিনিটে ৪৪০টি টেট্রা প্যাক তৈরি হবে। প্রতি মিনিটে ৮০০ বোলত জুস তৈরি হবে।  

মমতার প্রবল আন্দোলনের কারণে টাটারা সিঙ্গুর ছাড়তে বাধ্য হয়। তারপরই রাজ্যের ক্ষমতা দখল করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি রাজ্যের পালাবদল হলেও রাজ্যের কর্মসংস্থান আর শিল্পায়ন নিয়ে প্রায়ই বিরোধীরা তীব্র সমালোচনা করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের। তাঁদের প্রশ্ন রাজ্যে শিল্প কোথায়। আর তারই উত্তর দিতে মুখ্যমন্ত্রী পরপর কয়েকটি জনসভাতেই রাজ্যের শিল্পের চিত্র তুলে ধরছেন। তিনি দাবি করেন বাংলায় কর্মসংস্থানের সুযোগ বেড়েছে। তিনি উৎকর্ষ বাংলায় প্রশিক্ষণপ্রাপ্তদের প্রকাশ্যেই নিয়োগপত্র দিয়েছেন। সোমবারের অনুষ্ঠানে ১১ হাজার তরুণ-তরুণীকে নিয়োগপত্র দেওয়া হয়েছে। 

Nabanna Abhijan: নবান্ন অভিযানকে ঘিরে বজ্র আটুনি নিরাপত্তা, রাখা হচ্ছে জল কামান ...

টাটারা বিনিয়োগ করছে রাজ্যে, ১১ হাজার নিয়োগপত্র বিলি করে ঘোষণা মমতার

​​​​​​​কয়লা পাচারকাণ্ডে ম্যারাথন জেরা অভিষেকের শ্যালিকাকে, ৭ ঘণ্টা পরে বেরোলেন ED-র অফিস থেকে
 

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios