সোমবার বিজয়া দশমী। মা দূর্গার বিদায়ের পালা। কলকাতার অধিকাংশ পুজো কমিটি গুলি প্রতিমা বিসর্জন শুরু করে দিয়েছে। করোনা সুরক্ষায় গাইড লাইন মেনে কেমন চলছে বিসর্জন পর্ব? মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায়ের নির্দেশ মেনে প্রতিমা বিসর্জনের জন্য সব গঙ্গার ঘাট পরিদর্শন করলেন মন্ত্রী তথা কলকাতার পুর প্রশাসক ফিরহাদ হাকিম। স্পিড বোটে করে কলকাতার বিসর্জনঘাট গুলির পরিস্থিতি সরজমিনে খতিয়ে দেখেন ফিরহাদ হাকিম।

আরও পড়ুন-৫ নভেম্বর থেকে কলকাতা-চট্টগ্রামের উড়ান পরিষেবা চালু, সপ্তাহে ৪ দিন সরাসরি বাংলাদেশে

দশমীতে কলকাতার একাধিক গঙ্গার ঘাট পরিদর্শন করেন ফিরহাদ হাকিম। সঙ্গে ছিলেন,পুরসভার অন্যান্য আধিকারিকরা। বাজা কদমতলা ঘাট সহ বেশ কয়েকটি গঙ্গার ঘাট পরিদর্শন করেন ফিরহাদ হাকিম। ঘাট পরিদর্শন করে তিনি জানান, ''প্রতিমা বিসর্জন পর্ব সম্পন্ন করতে পুরসভার পক্ষ থেকে সবরকমভাবে ব্যবস্থা করা হয়েছে। বিসর্জের জন্য পুজো কমিটিগুলি কোথাও কোনও অসুবিধায় পড়লে তৎক্ষনাৎ পদক্ষেপ করছে পুরসভা। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায় নিজে ফোন করে প্রতিমা নিরঞ্জন পর্বের খোঁজ খবর নিচ্ছেন। করোনা সুরক্ষার উপর নজর গিয়ে বিসর্জনের সময় গঙ্গার ঘাটগুলিকে বিশেষ ব্যবস্থা করেছে কলকাতা পুলিশ। ভিড় বা জমায়েত এড়াতেও সবরকম ব্যবস্থা করা হয়েছে। মুটেরাদের সাহায্যে বিসর্জনের ব্যবস্থা করা হয়েছে। সরকারি আধিকারিকরা তাঁকা তাঁদের প্রয়োজন মতো কাজ করবেন''।

আরও পড়ুন-কাদা মেখে বিজয়ার শুভেচ্ছা বিনিময়, অভিনব বিজয়া দশমী পালন বাঁকুড়ায়

শুধু মাত্র গঙ্গার পাড়ে দাঁড়িয়ে নয়। স্পিড বোটে করে গঙ্গাবক্ষে বিসর্জন পর্বের সবরকম পরিস্থিতি খতিয়ে দেখেন পুর-প্রশাসক ফিরহাদ হাকিম। করোনাভাইরাসের আবহে স্বাস্থ্য সুরক্ষায় যাবতীয় গাইড লাইন মেনে প্রতিমা বিসর্জন চলছে বলে আশ্বাস দিলেন পুর ও নগরোন্নয়নমন্ত্রী।