করোনা ভাইরাসের মোকাবিলায় রাজ্য়জুড়ে চলছে লকডাউন। আর সেই লকডাউনকেই লঙ্ঘন করছেন একাংশ মানুষ। যার জেরে লকডাউনের মাঝে নিয়মভঙ্গের অভিযোগে গত ৪৮ ঘণ্টায় কলকাতায় প্রায় ১৫০০ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে৷ 

আরও পড়ুন,তন্বী কাকিমার লকডাউন এফেক্ট, বাড়িকেই বানিয়ে ফেললেন ডিস্কো থেক, হয়ে গেলেন ভাইরাল

সূত্রের খবর, এখনও পর্যন্ত কলকাতায় ৫৯১৬ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ৷ প্রায় দেড়শোটি যানবাহন বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে৷ শুক্রবার ৮০০ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে এবং ১৪৮টি গাড়ি বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে। এবং পাশাপাশি লকডাউনের নিয়ম লঙ্ঘন করে রাস্তায় বেরোনোয় ২ এপ্রিল ৬৯৯ জনকে গ্রেফতার করেছে কলকাতা পুলিশ। ইএম বাইপাসের উপর পাটুলিতে একটি অ্যাম্বুল্যান্স থেকে চালক এবং ছয় শ্রমিককে গ্রেফতার করে পুলিশ৷ রোগী নিয়ে যাওয়ার নাম করে ওই অ্যাম্বুল্যান্সটিতে করে শ্রমিকদের কাকদ্বীপ থেকে বনগাঁ পৌঁছে দিচ্ছিলেন অভিযুক্ত চালক৷ বনগাঁ পৌঁছে দেওয়ার জন্য ওই শ্রমিকদের থেকে সাড়ে চার হাজার টাকায় রফায় করেছিলেন চালক৷ এঁদের সবাইকেই গ্রেফতার করেছে পুলিশ৷

আরও পড়ুন, করোনা মোকাবিলায় বিপুল খরচ, নতুন নিয়োগ বন্ধের সিদ্ধান্ত রাজ্যের

রাজ্য প্রশাসনের শীর্ষ স্তর থেকে অনুমতি পাওয়ার পরই লকডাউন সংক্রান্ত বিধিনিষেধ প্রয়োগে আরও কড়া হয় কলকাতা পুলিশ৷ এরপরই কলকাতায় কড়া নজরদারি বাড়ানো হয়৷ বিশেষত শহরে ঢোকা ও বেরনোর  পথগুলিতে অভিযান চালায় পুলিশ৷ পাশাপাশি নিয়মভঙ্গের অভিযোগে যাঁদের গ্রেফতার করা হচ্ছে ধৃতরা যাতে সহজে থানা থেকেই জামিন না পান, তাও নিশ্চিত করতে ব্যবস্থা নিচ্ছে পুলিশ৷ শহরের অলিগলিতে যাতে মানুষ  আড্ডা না মারতে পারেন, তা নিশ্চিত করতে বার বার হানা দিচ্ছে পুলিশের টহলদারি গাড়ি৷
 

 

 রাজ্য়ে করোনায় আক্রান্ত এবার এক নার্স, পরিবারকে কোয়ারেনটাইনে থাকার নির্দেশ স্বাস্থ্য দফতরের

করোনা আক্রান্তদের এমআর বাঙ্গুরে স্থানান্তর ঘিরে তুলকালাম, অভিযোগ নিয়ে অবস্থান বিক্ষোভে নার্সরা

পাঁচিল টপকালেই ভাইরাস এক্সপার্ট সেন্টার, তবুও মুখ ফিরিয়ে মেডিক্য়াল কলেজ