পয়লা জুন থেকে রাজ্য়ের মন্দির মসজিদ গির্জা গুরুদ্বার খুলে যাচ্ছে। শুক্রবার নবান্নে জানালেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তবে মানতে হবে কিছু নিয়ম। মন্দির, মসজিদ, গির্জা সমস্ত ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানেই  রাখতে হবে বিশেষ ব্যবস্থা। তবে একসঙ্গে কোথাও ১০ জনের বেশি ঢুকতে পারবে না। 

আরও পড়ুন, বিমানে কলকাতায় ফিরতে চাইলে রইল প্রয়োজনীয় তথ্য, জানুন কী কী পদক্ষেপ নিতে হবে

শুক্রবার নবান্নে জানালেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, ১ জুন সকাল ১০টা থেকে রাজ্যে সমস্ত ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়া হবে। তবে তিনি আরও জানিয়েছেন, কোনও রকম জমায়েত ছাড়াই সর্বাধিক ১০ জনকে নিয়ে মন্দিরের কাজকর্ম চালানো যাবে। মন্দির খুললেও মানতে সোশ্যাল ডিস্ট্যান্সিং। করোনা মোকাবিলায় বড় কোনও জমায়েত  এড়িয়েই চলতে হবে। কোনও ধর্মীয় ভীড় করা যাবে না। তবে মন্দির, মসজিদ, গুরুদ্বার বা অন্য ধর্মীয় স্থান খুলবে। মন্দিরে একবারে ১০ জন করে ঢুকতে পারবে। এর বেশি লোক ঢোকা চলবে না। 

আরও পড়ুন, বিকেলের পর প্রায় ৫০ কিমি বেগে ধেয়ে আসতে পারে ঝড়, সঙ্গে ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস


 মুখ্যমন্ত্রী আরও বলেছেন, ‌ দেবদেবীরও পুজো হোক। তবে প্রার্থনা বা অন্য কোনও বিষয়ে মন্দিরে জমায়েতের এখনই অনুমতি দেওয়া যাবে না। একজন যাবেন, পুজো দেবেন বা প্রার্থনা করবেন, চলে আসবেন। বড় জমায়েত যেন না হয়।এবং অবশ্য়ই মাস্ক পরতে হবে। মন্দির, মসজিদ, গির্জা সব পবিত্র জায়গাতেই  রাখতে হবে স্যানিটাইজেশনের ব্যবস্থাও।   ধর্মীয় স্থানে প্রবেশের আগে স্যানিটাইজেশন বাধ্যতামূলক। উল্লেখ্য়, সংক্রমণ এড়াতে  এখনই বাংলায় স্কুল-কলেজ খুলছে না।  
 

 

করোনা আক্রান্ত রাজ্য়ের তৃণমূল বিধায়ক, কালীঘাটের ফ্ল্য়াট সিল করে বসল পুলিশি প্রহরা

করোনা আক্রান্ত বেলেঘাটা থানার আধিকারিক সহ পরিবারের ৬ সদস্য, আইডিতে এখন চিকিৎসধীন

দেহ রাখার জায়গা না থাকায় ডিপ ফ্রিজ বসছে মেডিকেলের মর্গে, মৃতদেহ 'ম্যানেজমেন্ট'-এ নিয়োগ অ্যাসিস্ট্যান্ট

কোভিড পজিটিভ হয়ে মৃত্য়ু প্রখ্যাত ইতিহাসবিদ হরিশঙ্কর বাসুদেবনের