Asianet News BanglaAsianet News Bangla

Offline Exam: 'কোভিডের ভয় থাকলেও পরীক্ষাটা দরকার', আজ ৩ হাজারেরও বেশি স্কুলে অ্যাচিভমেন্ট টেস্ট

 শুক্রবার তিন হাজারেরও বেশি স্কুলে ন্যাশনাল অ্যাচিভমেন্ট টেস্ট । তাতে কি করোনা বিধি মেনে কয়েক হাজার পড়ুয়ার পরীক্ষা দেওয়া আদৌ সম্ভব,  প্রশ্নের উত্তর খুঁজতে শ্রী শিক্ষায়তন স্কুল চত্ত্বরে পৌছে গেল এশিয়ানিটে নিউজবাংলা।

National Achievement Test is being conducted in more than 3000 schools in Covid Situation on Friday RTB
Author
Kolkata, First Published Nov 12, 2021, 11:25 AM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

'কোভিডের ভয় থাকলেও পরীক্ষাটা দরকার', শুক্রবার এমন বার্তাই দিলেন রাজ্যের স্কুলের অভিভাবকরা। রাজ্য সরকারের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ১৬ তারিখ থেকে খুলছে স্কুল-কলেজ। তবে করোনা বিধিনিষেধ মেনে, তার আগেই শুক্রবার তিন হাজারেরও বেশি স্কুলে (Above  3000 Schools )ন্যাশনাল অ্যাচিভমেন্ট টেস্ট (National Achievement Test)এর আয়োজন করা হয়েছে। এই পরীক্ষায় তৃতীয়,পঞ্চম,অষ্টম ও দশম শ্রেণীর কয়েক হাজার ছাত্র-ছাত্রী অফলাইনে পরীক্ষায় বসবে। এহেন পরিস্থিতিতে শুক্রবার  একাধিক প্রশ্ন নিয়ে শ্রী শিক্ষায়তন স্কুল (Shri Shikshayatan  School) চত্ত্বরে পৌছে গেল এশিয়ানিট নিউজ বাংলা।

আরও পড়ুন, Ajay Kumar Bhalla: আজই রাজ্যে আসছেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রসচিব, BSF-র ইস্যুতে জরুরি বৈঠক

তবে প্রশ্ন উঠছে একটাই সেন্ট্রাল বোর্ড অফ সেকেন্ডারি এডুকেশন যে পদ্ধতিতে ন‍্যাসের আয়োজন করেছে, তাতে কি করোনা বিধি মেনে কয়েক হাজার পড়ুয়ার পরীক্ষা দেওয়া আদৌ সম্ভব। সেই প্রশ্নের উত্তর খুঁজতে শ্রী শিক্ষায়তন স্কুল চত্ত্বরে পৌছে গেল এশিয়ানিট নিউজ বাংলা। সেখানে গিয়ে দেখা গেল, সকল করোনা বিধি নিষেধ মেনে ছাত্র-ছাত্রীদের প্রবেশ করানো হচ্ছে। এছাড়াও অভিভাবকদের বক্তব্য, 'এতদিন স্কুলগুলো বন্ধ ছিল অফলাইনে পরীক্ষা হচ্ছিল না। এর ফলে  ছাত্র ছাত্রীর ওপর প্রভাব পড়েছিল। পড়াশোনার সঙ্গে তাদের দূরত্ব তৈরি হয়েছিল। করোনার ভয় থাকলেও অফলাইনে পরীক্ষা দরকার। হয়তো ভেতরে সামাজিক দূরত্ব পালন নাও হতে পারে। এবং এত জন ছাত্র-ছাত্রী এসেছে, এর ফলে  করোনা হওয়ার একটা বিপুল ভয় থাকতে পারে। এখানে তৃতীয় এবং পঞ্চম শ্রেণীর ছাত্রছাত্রীরা রয়েছে। সে ক্ষেত্রে ভয় থাকলেও পরীক্ষাটা দরকার ছিল।'

আরও পড়ুন, Weather Report: গভীর নিম্নচাপের জের, আগামী ২৪ ঘন্টায় বর্ষণ কলকাতা সহ দক্ষিণবঙ্গে

প্রসঙ্গত, আগামী ১৬ নভেম্বর থেকেই রাজ্যে খুলে যাচ্ছে স্কুল। করোনা পরিস্থিতির মধ্যে রাজ্যে স্কুল খোলার বিরুদ্ধে যে মামলা দায়ের করা হয়েছিল তা খারিজ করে দিয়েছে কলকাতা হাইকোর্ট । এক্ষেত্রে রাজ্য সরকারের সিদ্ধান্তই বহাল রাখল আদালত। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়  জানিয়েছিলেন, ভাইফোঁটার পর যদি রাজ্যে করোনা পরিস্থিতি ঠিক থাকে তাহলে তারপরই সব স্কুল খোলা হবে। এখন অবশ্য রাজ্যে দৈনিক করোনার গ্রাফ আগের থেকে অনেকটাই নিম্নমুখী। তাই উত্তরবঙ্গ সফরে গিয়ে স্কুল খোলার তারিখ ঘোষণা করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। জানানো হয়েছিল, নবম থেকে দ্বাদশ শ্রেণি পর্যন্ত স্কুল চালু হবে আগামী ১৬ নভেম্বর থেকে। সকাল সাড়ে ন'টা থেকে বিকেল সাড়ে তিনটে পর্যন্ত নবম ও একাদশ শ্রেণি এবং ১০টা থেকে বিকেল সাড়ে চারটে পর্যন্ত দশম ও দ্বাদশ শ্রেণীর ক্লাস নেওয়া হবে। করোনাবিধি মেনেই চলবে স্কুল।

আরও দেখুন, বিরিয়ানি থেকে তন্দুরি, রইল কলকাতার সেরা খাবারের ঠিকানার হদিশ  

আরও দেখুন, কলকাতার কাছেই সেরা ৫ ঘুরতে যাওয়ার জায়গা, থাকল ছবি সহ ঠিকানা  

আরও দেখুন, মাছ ধরতে ভালবাসেন, বেরিয়ে পড়ুন কলকাতার কাছেই এই ঠিকানায়  

আরও পড়ুন, ভাইরাসের ভয় নেই তেমন এখানে, ঘুরে আসুন ভুটানে  

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios