ভারতে জেএমবি অর্থাৎ জামাত-উল-মুজাহিদিন জঙ্গি সংগঠনের মাথা ও বিহারের বুদ্ধগয়ায় বিস্ফোরণে অভিযুক্ত জঙ্গি আব্দুল করিমকে অবশেষে গ্রেফতার করল এসটিএফ। বৃহস্পতিবার রাতে মুর্শিদাবাদের সুতি থানা এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করে কলকাতা পুলিশের এসটিএফ। ধৃতকে শুক্রবার ব্যাঙ্কশাল আদালতে তোলা হবে।

আরও পড়ুন, করোনার সংক্রমণ এবার লালবাজারে, গড়ফা থানায় আক্রান্ত আরও ২


এসটিএফ সূত্রে খবর, আব্দুল করিম জেএমবির বিস্ফোরক বিশেষজ্ঞ। এদেশে জেএমবির তিন মোস্ট ওয়ান্টেড জঙ্গির মধ্যে একজন। বুদ্ধগয়ায় যে আইইডি বিস্ফোরণ ঘটেছিল তা সরবরাহ করেছিল জেএমবির  এই বিস্ফোরক বিশেষজ্ঞ। ২০১৮ সালে জানুয়ারি মাসে ওই বিস্ফোরণের ঘটনায় তদন্তভার নেওয়ার পরই আব্দুল করিমের বাড়িতে হানা দিয়েছিল এসটিএফের গোয়েন্দারা। সে সময় তাকে পাওয়া যায়নি। তবে তার বাড়ি থেকে প্রচুর বিস্ফোরক বাজেয়াপ্ত করা হয়। সেই সময় থেকেই গা ঢাকা দিয়ে বেড়াচ্ছিল আব্দুল করিম। বিহার, ঝাড়খন্ড কখনও বা রাজ্যে বিভিন্ন আত্মীয়ের বাড়িতে গা ঢাকা দিয়ে বেড়িয়েছে এই জঙ্গি।

আরও পড়ুন, বিমানে কলকাতায় ফিরতে চাইলে রইল প্রয়োজনীয় তথ্য, জানুন কী কী পদক্ষেপ নিতে হবে

পেশায় ট্রাক্টর চালক করিম চাষবাষের আড়ালেই সংগঠন বিস্তারের কাজ করত। বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থার হাতে তার ছবি পৌঁছে যাওয়ায় লুকিয়ে থাকার জন্য চেহারায় আমূল পরিবর্তন এনেছিল করিম। আগে গোঁফ, দাড়ি রাখলেও পরবর্তীতে গোঁফ দাড়ি ছাড়া ঘোরাফেরা করত। চুলের ছাটও বদল করেছিল। আগে পাঞ্জাবি পড়ে ঘোরাফেরা করলেও পরবর্তীতে টি-শার্ট ও জামা পরে ঘুরে বেড়াত সে। তবে এসব করেও শেষ রক্ষা হল না। ধৃতকে আজ শুক্রবার ব্যাঙ্কশাল আদালতে তোলা হবে।

 

করোনা আক্রান্ত রাজ্য়ের তৃণমূল বিধায়ক, কালীঘাটের ফ্ল্য়াট সিল করে বসল পুলিশি প্রহরা

করোনা আক্রান্ত বেলেঘাটা থানার আধিকারিক সহ পরিবারের ৬ সদস্য, আইডিতে এখন চিকিৎসধীন

দেহ রাখার জায়গা না থাকায় ডিপ ফ্রিজ বসছে মেডিকেলের মর্গে, মৃতদেহ 'ম্যানেজমেন্ট'-এ নিয়োগ অ্যাসিস্ট্যান্ট

কোভিড পজিটিভ হয়ে মৃত্য়ু প্রখ্যাত ইতিহাসবিদ হরিশঙ্কর বাসুদেবনের