ফের অসুবিধার সম্মুখীন কলকাতা মেডিক্য়ালের রোগীরা। কলকাতা মেডিকেল কলেজে সুপারস্পেস্যালিটি ব্লকের লিফট খারাপ সমস্যায় পড়েছে রোগীরা। এদিকেপেরিয়ে গেছে গেছে প্রায়  দু'ঘণ্টা। উল্লেখ্য়, কিছু দিন আগে  বিদ্য়ুৎ বিভ্রাট হয়েছিল কলকাতা মেডিক্য়ালে।সেবারও সবমিলিয়ে সমস্যায় পড়তে হয় কর্তৃপক্ষকে।

খুলে গেল দক্ষিণেশ্বর মন্দির, ১৫ জুন খুলবে বেলুড়ও

সূত্রের খবর, কলকাতা মেডিকেল কলেজে সুপারস্পেস্যালিটি ব্লকের লিফট খারাপ হয়ে গিয়েছে প্রায় ২ ঘন্টার ওপরে। এদিকে সেই লিফট দিয়ে রোগীরা যাতায়াত করে। অনেকেই সিড়ি ভাঙতে পারে না।  রোগী  কিংবা বয়েসের ভারে অসুস্থ সবাইকে সুবিধা দিতেই ওই লিফট পরিষেবা দেওয়া হয়। অনেকে রোগীর ছুটিও হয়েছে কিন্তু তারাও বেরোতে পারছে না লিফট খারাপ থাকার জন্য়। এদিকে সরকারি জায়গায় এমন পরিস্থিতি পড়ে চরম ভোগন্তির শিকার হয়েছে রোগীরা।

আরও পড়ুন, শহরে দূষণ নিয়ন্ত্রনে বৃক্ষরোপণ-সংক্রমণ রুখতে কোয়ারেন্টিন সেন্টার, সক্রিয় ভূমিকায় ফিরহাদ

প্রসঙ্গত কিছু দিন আগে  বিদ্য়ুৎ বিভ্রাট হয়েছিল কলকাতা মেডিক্য়ালে। আচমকাই বিদ্যুৎবিহীন হয়ে পড়েছিল একাধিক বিল্ডিং।  হঠাৎই গ্রীন বিল্ডিং অন্ধকার হয়ে গিয়েছিল। আর এখানেই একশোরও উপরে করোনা আক্রান্ত সন্দেহে রোগী ভর্তি ছিল। এই বিল্ডিং এর মধ্য়েই রয়েছে আইসিইউ। প্রায় দেড়ঘণ্টা সবই বিদ্যুৎবিহীন অবস্থায় থাকে। ইডেন বিল্ডিং, গ্রীন বিল্ডিং-সহ বেশ কয়েকটি বিল্ডিং সম্পূর্ণ অন্ধকারে ছিল দীর্ঘ সময় ধরে। এরপর  জন্য ইডেন বিল্ডিং-এর পিছনে রাখা সবচেয়ে বড় জেনারেটর  চালু করার চেষ্টা করা হয়। এদিকে চালু করা যায়নি জেনারেটরও। সেবারও সবমিলিয়ে সমস্যায় পড়তে হয় কর্তৃপক্ষকে। চরম ভোগান্তি হয় রোগীদেরও। আরও একবার সেই ছবিই উঠে এল।