করোনা পর্বের মাঝে দীর্ঘ লকডাউন চলাকালীন কলকাতার বুকে এক ডাক্তারি ছাত্রী। আর এবার আনলক পরিস্থিতিতে ভরা পুজোর মরশুমে পৃথিবী ছাড়ল আইআইএম জোকার এক ছাত্রী। কেন, কীসের টানে সে এভাবে চলে গেল তা নিয়ে তদন্ত চলছে।

আরও পড়ুন, ফ্রান্সের প্রেসিডেন্টের বিরুদ্ধে মুসলিমদের বিক্ষোভ কলকাতায়, কনসুলেটের আগেই আটকাল পুলিশ

 উদ্ধার তার নিজের হোস্টেলের ঘর থেকে


দেশের অন্যতম সেরা রেসিডেনশিয়াল ম্যানেজমেন্টের প্রতিষ্ঠান, জোকার এই আইআইএম অর্থাৎ ইন্ডিয়ান ইন্সিটিউট অব ম্য়ানেজমেন্ট। আর সেখানেরই এক উজ্জ্বল ভবিষ্যতের ছাত্রী জীবন ছাড়ল। পুলিশি সূত্রে খবর,  জোকা মেনেজমেন্টে এক ছাত্রীর ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার তার নিজের হোস্টেলের ঘর থেকে। শনিবার বেলা ১২ টার সময় পুলিশ গিয়ে দেহ উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে গেলে তাকে মৃত ঘোষণা করা হয়। জানা গিয়েছে, মেয়েটির বাড়ি বারুইপুরে। 

আরও পড়ুন, নবান্ন অভিযানে পুলিশের বেদম মার খাওয়া কর্মীদের সম্মান জানাবে বিজেপি, জানালেন সৌমিত্র খাঁ

 

 

হবু বরের সঙ্গে দেখা করার জন্য

 

অপরদিকে, কী কারণে ওই ছাত্রীর মৃত্যু হল তা পরিষ্কার নয়। ইতিমধ্যেই  তদন্তে নেমেছে হরিদেবপুর থানার পুলিশ। প্রসঙ্গত, দীর্ঘ লকডাউন চলাকালীন কলকাতার বুকে এক ডাক্তারি ছাত্রী আত্মঘাতী হয়েছিল, তার হবু বরের সঙ্গে দেখা করার জন্য। আইআইএম-জোকার ক্ষেত্রে কোনও প্রেম বা শত্রুতা জনিত কোনও কারণে এই ঘটানা ঘটানো হয়েছে কিনা তাও খতিয়ে দেখা হচ্ছে।