টিকিয়াপাড়া কাণ্ডে কড়া ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী  মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ সেই অনুযায়ী ঘটনার পর থেকেই কড়া পদক্ষেপ করেছে পুলিশ৷ এবার পুলিশের উপরে হামলার ঘটনায় মূল অভিযুক্ত শাকিবকে গ্রেফতার করল পুলিশ৷

আরও পড়ুন, করোনা আক্রান্ত এবার জোড়াবাগান ট্রাফিক গার্ডের এক পুলিশকর্মী, বাঙ্গুর হাসপাতালে তিনি চিকিৎসাধীন


মুখ্যমন্ত্রী কথা অনুযায়ী হাওড়ার টিকিয়াপাড়ার বেলিলিয়াস রোডে পুলিশ পেটানোর ঘটনায় কড়া পদক্ষেপ নিল নবান্ন। ইতিমধ্য়েই সরিয়ে দেওয়া হয়েছে হাওড়ার পুর-কমিশনার বিজিন কৃষ্ণাকে। এই ঘটনা ঘটনায় প্রধান অভিযুক্ত শাকিবকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ৷ এখনও পর্যন্ত টিকিয়াপাড়া কাণ্ডে এই নিয়ে মোট ১৩জনকে গ্রেফতার করল পুলিশ৷

আরও পড়ুন, শতবর্ষে সত্যজিৎ, 'মহারাজা'র ১০০ তম জন্মদিনে 'সেলাম' জানিয়ে টুইট মমতার

 

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় হাওড়া শহর এলাকাকে অত্যন্ত স্পর্শকাতর ঘোষণা করেন। রেড জোনে থাকা হাওড়াকে তিনি ১৪ দিনের মধ্যে অরেঞ্জ জোনে নিয়ে আসার নির্দেশ দিয়েছিলেন। কিন্তু এসব সত্ত্বেও ওইসব এলাকায় বহু মানুষকে লকডাউনে রাস্তায় নামতে দেখা যায়। বিকেলে টিকিয়াপাড়ার বেলিলিয়াস রোডে ফল ও অন্যান্য জিনিস কেনার জন্য অসংখ্য মানুষকে রাস্তায় নামতে দেখা যায়। এই সময়ে এলাকায় টহলরত পুলিশ বাইরে বেরোনো মানুষজনকে ঘরে ফিরে যাওয়ার জন্য অনুরোধ করতে থাকে। অভিযোগ, একরকম বাধ্য হয়েই পুলিশ এলাকার মানুষকে ঘরে ফিরে যাওয়ার জন্য সামান্য বল প্রয়োগ করে। সঙ্গে সঙ্গেই কয়েকজনের সঙ্গে পুলিশের বচসা শুরু হয়। তারপরই তারা পুলিশকে লক্ষ্য করে ইটপাটকেল ছুঁড়তে থাকে। জনতার ছোঁড়া ইটের আঘাতে একজন সাব-ইন্সপেক্টর সহ দুই পুলিশকর্মীর মাথা ফাটে। উন্মত্ত জনতা পুলিশের দুটি গাড়ি ভাঙচুর করে। উন্মত্ত জনতার হাত থেকে পুলিশ কর্মীরা কোনওরকমে প্রাণ নিয়ে ফিরে আসেন। তারপর বিশাল সংখ্যক পুলিশ, রাফ ও কমব্যাট ফোর্স গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এখন ধৃতদের সবাইকে জামিন অযোগ্য ধারায় মামলা রুজু করা হচ্ছে। 

 

 

রোগী ফেলে পালাতে পারল না অ্যাম্বুল্যান্স, পিপিই পরা স্বাস্থ্য়কর্মীদেরকে তীব্র প্রতিবাদ নাকতলাবাসীর

রাজ্য়ে একাধিক করোনা রিপোর্ট 'ফলস' নেগেটিভ, কী বলছেন চিকিৎসকরা

রিপোর্ট 'নেগেটিভ' -পাঠানো হল বাড়ি, ভূল থাকায় ফের ডাক, বাঙ্গুর হাসপাতালে মৃত্যু করোনা আক্রান্তের