৩২ তম বর্ষে এসে অভিনব ভাবনা এ-কে ব্লকের। এই বছর তাদের ভাবনায় উঠে এসেছে ষড়রিপুর অন্যতম এক রিপু। মানুষের মনের মোহ কেই নিজেদের পুজোর বিষয়বস্তু হিসাবে নির্বাচন করেছে এ-কে ব্লক পুজো কমিটি।

আরও পড়ুন- এবার পুজোয় নতুন দেশের সন্ধান দেবে সল্টলেক এফ-ডি ব্লক

        পুজো উদ্যোক্তাদের মতে এবারের পুজোয় তাদের দর্শনার্থীদের আয়নার সামনে দাঁড় করাতে চাইছেন তারা। দেখাতে চাইছেন জীবনের বেশির ভাগ সময় আমরা ছুটে বেড়াই আমাদের কাঙ্খিত বস্তুর মোহে। সেই মোহ-এর ফাঁদে জড়িয়ে আমরা ভুলে যাই আমাদের জীবনের ছোট ছোট আনন্দ গুলিকে। আজ মানুষ আর ট্রেনে বা বাসে জানালার পাশে বসার জায়গা পেলে আনন্দিত হয় না আগের মতো, কিংবা বৃষ্টির পর রামধনু উঠতে দেখে তাদের মন ঝলমলিয়ে উঠে না। বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই এই সব ব্যাপারগুলিকে আর পাত্তা দেয় না মানুষ। সেই সময়ও তারা ব্যায় করে তাদের কাঙ্ক্ষিত দ্রব্যের মোহে। ফলে সম্পর্কের মূল্য সম্পর্কেও আস্তে আস্তে উদাসীন হয়ে পড়ছে বেশিরভাগ মানুষ। এই ব্যাপারেই সকলকে সচেতন করতে চাইছে এ-কে ব্লক পূজো কমিটি।

আরও পড়ুন- এবার মাধব দাস লেন সর্বজনীন দুর্গোৎসবের মায়ের হাত ধরেই আলোকিত হবে ডাক, জেনে নিন তাদের পুজোর থিম
 
       প্রতিমা শিল্পী অরূপ করের নেতৃত্বে প্রতিমার কাজ প্রায় সম্পূর্ণ হয়ে এসেছে এখানে। মণ্ডপ শিল্পী পূর্ণেন্দু দে-র নেতৃত্বে মণ্ডপ সজ্জার কাজ শুরু হয়েছে ৩ মাস আগে থেকে এবং মহালয়ার আগেই মণ্ডপের কাজটি শেষ করতে চাইছেন শিল্পীরা। যদিও পুজোর বাজেট সম্পর্কে নির্দিষ্ট করে কিছু জানাননি পুজো উদ্যোক্তারা। তবে তারা জানিয়েছেন পুজোর দিনগুলিতে ব্লকের বাসিন্দাদের বসিয়ে খাওয়ানোর ব্যবস্থা থাকছে। তারা আরো জানিয়েছেন প্রতিপদের দিনই তাদের পুজোর উদ্বোধন

   নতুন ভাবনার এই পুজোকে চাক্ষুস করতে চাইলে চলে আসতেই হবে সল্টলেক এ-কে ব্লক এসোসিয়েশনের এই পুজোয়।