করোনা সংক্রমণ রুখতে রাজ্য জুড়ে চলছে লকডাউন। স্কুল বন্ধ থাকলেও পড়াশোনা সচল রাখতে চায় রাজ্য। তাই আর অনলাইনে নয়, টিভি চ্যানেলেই ক্লাস করাতে চায় রাজ্য স্কুল শিক্ষা দফতর। বিশেষত যে সমস্ত ছাত্র-ছাত্রী নবম থেকে দশম শ্রেণীতে এবং  একাদশ থেকে দ্বাদশ শ্রেণীতে উঠেছে তাদের ক্ষেত্রে এই পরিকল্পনা নিচ্ছে রাজ্য স্কুল শিক্ষা দফতর। 

আরও পড়ুন, পাঁচিল টপকালেই ভাইরাস এক্সপার্ট সেন্টার, তবুও মুখ ফিরিয়ে মেডিক্য়াল কলেজ


 বৃহস্পতিবার এই বিষয় নিয়ে স্কুল শিক্ষা সচিব মনিশ জইন এক প্রকার ভিডিও কনফারেন্স করে বৈঠক করেছেন। মধ্যশিক্ষা পর্ষদ,সিলেবাস কমিটি ,উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা সংসদ, স্কুল শিক্ষা কমিশনার সহ দফতরের আধিকারিকদের নিয়ে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যে নাগাদ ভিডিও কনফারেন্স হয়। সেই বৈঠকে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত না হলেও আলোচনা অনেকটাই এগিয়েছে বলে স্কুল শিক্ষা দপ্তর সূত্রে খবর। ইতিমধ্যেই কেন্দ্রীয় মানব সম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রক তরফে তৈরি করা চ্যানেলের সহযোগিতায় ক্লাস নিতে শুরু করেছে। সেই ধাঁচেই ক্লাস নেওয়া যায় নাকি তা নিয়ে আলোচনা হয়েছে। সূত্রের খবর এ বিষয়ে মুখ্যমন্ত্রীর অনুমোদন পেলেই পরবর্তী পর্যায়ে এগোবে স্কুল শিক্ষা দফতর।

আরও পড়ুন, করোনার জের, চলতি বছরে বড়সড় কোপ কলকাতার সেরা দুর্গাপুজোর বাজেটেও

অপরদিকে, দেশ তথা রাজ্য় জুড়ে ক্রমশই বাড়ছে করোনা  আক্রান্তের সংখ্যা।  পরিসংখ্যান বলছে, শুক্রবার সকাল পর্যন্ত দেশে করেনা আক্রান্তের সংখ্য়া ২৩০১ ৷ সারা দেশে মৃতের সংখ্যা ৫৫ ছাড়িয়েছে ৷  এই মুহূর্তে রাজ্যে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত সংখ্যা ৫০ ছাড়িয়েছে। যার জেরে গত ১৫ই মার্চ থেকে রাজ্যজুড়ে স্কুল-কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ের গুলি বন্ধ রাখা হয়েছে। পিছিয়ে দেওয়া হয়েছে রাজ্যের উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষাও। পাশাপাশি বৃহস্পতিবারই শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় প্রথম থেকে অষ্টম শ্রেণি পর্যন্ত কোনও ছাত্র-ছাত্রীকেই ফেল করানো হবে না বলে ঘোষণা করেছেন। যদিও স্কুল শিক্ষা দফতর জানিয়েছে, যদিও আগামী বছরে যারা মাধ্যমিক-উচ্চমাধ্যমিক দেবেন তাদের পডা়শোনার অনেকটাই ক্ষতি হবে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

ফের তথ্য গোপন করোনা আক্রান্ত প্রৌঢ়ের ভাইয়ের, আইসোলেশনে ভর্তি বরানগরের বাসিন্দা

জ্বর নিয়েই ট্রেন করে একটানা অফিস, ভয়ে কাঁটা রাজ্য়ের করোনা আক্রান্তর সহকর্মীরা
 

রাজ্যে আরও এক করোনা আক্রান্তের হদিশ,সংক্রমিতের সংখ্যা বেড়ে ২২