শাজাহান আলি, পশ্চিম মেদিনীপুর-শুভেন্দুকে নিয়ে টালবাহানার মাঝেই গত ৭ ডিসেম্বর মেদিনীপুর কলেজ মাঠে সভা করেছিলেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায়। সেই হাইভোল্টেজ সভা থেকে কৃষি আইনের বিরোধিতা করে বিজেপির বিরুদ্ধে সরব হয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায়। এবার সেই জায়গাতেই মমতার পালটা হিসেবে মেদিনীপুর কলেজ মাঠে সভা করতে চলেছেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। ওই দিনই প্রাক্তন পরিবহণমন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী আনুষ্ঠানিকভাবে বিজেপিতে যোগদান করতে পারেন বলে জল্পনা রাজ্য রাজনীতিতে।

আরও পড়ুন-বিজেপির 'প্রতিশ্রুতি' তোপ মমতার,' বিজেপি নতুন দাঙ্গা ধর্ম-ঘৃণ্য ধর্ম এনেছে', কটাক্ষ তৃণমূল নেত্রীর

ডায়মন্ড হারবারে জেপি নাড্ডার কনভয়ে হামলার ঘটনা নিয়ে রাজ্য-কেন্দ্র নতুন করে সংঘাতের আবহ তৈরি হয়েছে। নাড্ডার নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা তিন জন আইপিএসকে কেন্দ্রীয় ডেপুটেশনে চায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক। কিন্তু, এই বিষয়ে রাজ্য সরকার এখনও ছাড়পত্র না দেওয়ায় গোটা প্রক্রিয়া ঝুলে রয়েছে। এই আবহের মধ্যেই দুদিনের রাজ্য সফরে আসছেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। অপরদিকে, শুভেন্দু অধিকারী যে বিজেপিতে যোগদান করছেন। তা কিছুটা হলেও আভাস মিলেছে শুভেন্দুর তরফে। এই অবস্থায় মেদিনীপুরে অমিত শাহের সভা কার্যত বিজেপির হাইভোল্টেজ সভা বলে মনে করছেন অনেকে।

আরও পড়ুন-রাজ্য নয়, এবার থেকে কেন্দ্রীয় নিরাপত্তায় শুভেন্দু, বুলেট প্রুফ গাড়ি সহ দেখভালের দায়িত্বে এসআইবি

প্রথমে ঠিক ছিল অমিত শাহ তাঁর সফরের প্রথম দিনে মেদিনীপুর স্পোর্টস কমপ্লেক্সে দলীয় নেতা কর্মীদের সঙ্গে বৈঠক করবেন। কৃষক সংগঠনের সদস্যদের সঙ্গেও তাঁদের অভাব অভিযোগ নিয়ে আলোচনা করবেন বলে ঠিক হয়েছিল। কিন্তু, মঙ্গলবার রাতে আচমকা কর্মসূচি বদলে যায়। ঠিক হয় মেদিনীপুর কলেজ মাঠে যেখানে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায় সভা করেছিলেন, ঠিক সেখানেই সভা করবেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। এর ফলে কার্যত ঘুম উড়েছে মেদিনীপুর জেলা নেতৃত্বের। সভার প্রস্তুতিও জোরকদমে শুরু করে দিয়েছেন তাঁরা।