দূরপাল্লার ট্রেনের টিকিট বুকিং নিয়ে তৈরি হয়েছিল বিভ্রান্তি। বিভ্রান্তি ছড়িয়েছিল যে, ১৪ এপ্রিল লকডাউন উঠে গেলেই টিকিট বুকিং শুরু করবে রেল কর্তৃপক্ষ। কিন্তু এই তথ্য় সম্পূর্ণ যে ভূল, সেই প্রসঙ্গে এবার মুখ খুলল রেলমন্ত্রক। রেলের তরফে ট্যুইট করে যাত্রীদের উদ্দেশ্য়ে এই বিষয়ে বিস্তারিত জানানো হয়েছে।

করোনার জের, চলতি বছরে বড়সড় কোপ কলকাতার সেরা দুর্গাপুজোর বাজেটেও

 

 

বৃহস্পতিবারই রেলের তরফে ট্যুইট করে জানানো হয়েছে,যেহেতু দূরপাল্লার মেল-এক্সপ্রেস ট্রেনে অগ্রিম টিকিট বুক করা যায় ১২০ দিন আগেই, সেহেতু লকডাউন পরবর্তী সময়ের ট্রেনযাত্রার টিকিট বুকিং বন্ধই হয়নি। ১৪ এপ্রিলের পরবর্তী সময়ের সমস্ত মেল-এক্সপ্রেস ও প্রিমিয়াম ট্রেনের সংরক্ষণ চালু রয়েছে বলেই জানিয়ে দিল রেলমন্ত্রক। তবে ২৪ মার্চ থেকে ১৪ এপ্রিল পর্যন্ত লকডাউন চলাকালীন যেহেতু বন্ধ রাখা হয়েছে সমস্ত যাত্রীবাহী ট্রেনের চলাচল, সেহেতু ওই সময়কালের কোনও ট্রেনের টিকিট বিক্রি করা হচ্ছে না। ফলে লকডাউন পরবর্তী সময়ের ট্রেনের টিকিটের অনলাইন টিকিট বুকিং চালুই রয়েছে।

আরও পড়ুন, নজিরবিহীন, পয়লা বৈশাখে এবার আর লেখকে-পাঠকে দেখা হবে না বই পাড়ায়, বেরোবে না নতুন বই

অপরদিকে রেলের বুকিং কাউন্টারগুলি বন্ধ থাকায় সেখান থেকে টিকিট বিক্রি বন্ধ রাখা হয়েছে। লকডাউনের সময় যাঁরা টিকিট কেটেছিলেন, তাঁদের অবশ্য় পুরো টাকাই ফেরত দেওয়ার প্রক্রিয়া ইতিমধ্য়েই চালু হয়েছে। তাই এই যাবতীয় বিভ্রান্তি দুর করেছে টুইটারে রেলমন্ত্রক।

 

ফের তথ্য গোপন করোনা আক্রান্ত প্রৌঢ়ের ভাইয়ের, আইসোলেশনে ভর্তি বরানগরের বাসিন্দা

জ্বর নিয়েই ট্রেন করে একটানা অফিস, ভয়ে কাঁটা রাজ্য়ের করোনা আক্রান্তর সহকর্মীরা
 

রাজ্যে আরও এক করোনা আক্রান্তের হদিশ,সংক্রমিতের সংখ্যা বেড়ে ২২