লেকটাউনে খেলনার বন্দুক দেখিয়ে অপহরণ করতে গিয়ে পুলিশের জালে ধরা পড়ল অপরাধী। পাওনা টাকা চেয়েও না পাওয়ায় বন্ধুর হাতে অপহৃত হন বেলগাছিয়া এলাকার সরফরাজ। কিন্তু সরফরাজের আর্তনাদই শেষ পর্যন্ত বাঁচিয়ে দেয় তাঁকে। কর্তব্যরত ট্রাফিক পুলিশের নজরে আসায় হাতে নাতে পড়ে অপহরণকারীদল। অবশ্য় একজন ঘটনাস্থল থেকে পুলিশের চোখে ধুলো দিয়ে পালিয়ে যায়। 

আরও পড়ুন, মঙ্গলবার বিকেলে থেকেই শুরু কলকাতা বইমেলা, জোড়াসাঁকোর আদলে হয়েছে প্রবেশদ্বার


সম্প্রতি, বেলগাছিয়া এলাকার বাসিন্দা সরফরাজ নামে এক যুবককে একটি  গাড়িতে করে তুলে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল। সরফরাজ এর কাছে অনেকদিন ধরেই তিন বন্ধু  টাকা পেত। কিন্তু সেই টাকা বহুবার চাওয়ার পরেও সরফরাজ দিচ্ছিল না। এরপরেই অপহরণের ছক কষে ধৃত ব্য়াক্তি। সেই জন্যই জন্যই  তাকে  খেলনা বন্দুক দেখিয়ে অপহরণ করে নিয়ে যাওয়া হয় বলে অভিযোগ। লেকটাউন যশোর রোডের কাছে সরফরাজ যখন চিৎকার-চেঁচামেচি করায় তা পুলিশের কানে পৌছোয়। কর্তব্যরত ট্রাফিক পুলিশ গাড়িটিকে আটকে দেয়। এরপরে কর্তব্যরত ট্রাফিক পুলিশ, ধৃতদের লেকটাউন থানায় হাতে তুলে দেয়। 

আরও পড়ুন, করোনা ভাইরাস চিকিত্‍‌সায় প্রস্তুত বেলেঘাটা আইডি-উত্তরবঙ্গ মেডিক্যাল, বরাদ্দ হল ১৬ বেড


পুলিশি সূত্রে খবর,  এরা প্রত্যেকেই পূর্ব পরিচিত বন্ধুবান্ধব। এই ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে লেকটাউন থানার পুলিশ। কেন কীভাবে এই অপরাধের সঙ্গে জড়িয়ে পড়ল ধৃতরা, সে জন্য় দফায় দফায় পুলিশ তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করছে। এবং পলাতক যুবককে দ্রুত গ্রেফতার করার জন্য় তল্লাসি চালাচ্ছে পুলিশ।