আমফান মোকাবিলায় এনডিআরএফ-এর ২টি দলকে পাঠানো হয়েছে পশ্চিমবঙ্গে। শনিবার সন্ধ্যাতেই তাঁরা  পশ্চিমবঙ্গে চলে আসছেন। একটি দল মোতায়েন করা থাকবে সাগরদ্বীপে এবং অপরটি কাকদ্বীপে। পুরো পরিস্থিতির ওপর নজর রাখবেন তারা।

আরও পড়ুন, কলকাতা ছেড়ে বাড়ি ফিরলেন ভিনরাজ্য়ের বাসিন্দা ১৮৫ নার্স, সঙ্কটে রাজ্যের বেসরকারি স্বাস্থ্য পরিষেবা

আবহাওয়া দফতর সূত্রে খবর,  এই মুহূর্তে গভীর নিম্নচাপটি দক্ষিণ-পূর্ব বঙ্গোপসাগর এর উপর অবস্থান করছে। এই নিম্নচাপটি দীঘা থেকে প্রায় ১২০০ কিলোমিটার দূরে দক্ষিণ-দক্ষিণপশ্চিমে অবস্থান করছে। আগামী ১২ ঘন্টায় এটি শক্তি বাড়িয়ে ঘূর্ণিঝড়ে রূপান্তরিত হবে। তারপরে ২৪ ঘন্টায় এটা আরও শক্তি বাড়িয়ে সিবিআর  ঘূর্ণিঝড়ে  পরিণত হবে। প্রথমদিকে উত্তর-পশ্চিম দিকে অগ্রসর হবে, তারপর ১৭ তারিখ গতিপথ পরিবর্তন করে উত্তর-পূর্ব দিকে অর্থাৎ পশ্চিমবঙ্গই উড়িষ্যা উপকূলবর্তী অঞ্চলের দিকে অগ্রসর হবে। 

আরও পড়ুন, 'পরিযায়ী শ্রমিকদের ফেরার সমস্ত খরচ বহন করবে আমাদের সরকার', তাঁদের লড়াইকে স্যালুট জানিয়ে টুইট মমতার

১৮ থেকে ২০ তারিখের মধ্যে এটি পশ্চিমবঙ্গ ও উড়িষ্যা উপকূলের দিকে প্রবেশ করার সম্ভাবনা। ১৯ তারিখ এই ঘূর্ণিঝড়ের ফলে দুই ২৪ পরগনা, মেদিনীপুর, হাওড়া, হুগলি ,কলকাতা তে হালকা মাঝারি বৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনা। কয়েকটি জায়গায় ভারী বৃষ্টি হতে পারে। ২০ তারিখ দক্ষিণবঙ্গের জেলাগুলোতে বৃষ্টিপাতের পরিমাণ বাড়বে। বেশ কয়েকটা জায়গায় ভারী বৃষ্টি হতে পারে, তারমধ্যে দুই ২৪ পরগনা ও পূর্ব মেদিনীপুরে অতি ভারী বৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনা ।  ১৯ তারিখ ও ২০ তারিখউপকূলে জেলাগুলোতে প্রায় ৬০ থেকে ৬৫ কিলোমিটার ঝড়ো হাওয়া বয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা। ২০ তারিখ এই ঝড়ের গতিবেগ থাকবে ৯৫ কিলোমিটার, বিশেষ করে উপকূলের জেলা গুলোর জন্য ।সমুদ্র আগামীকাল থেকে উত্তাল হতে শুরু করবে। ১৮ তারিখ ও ১৯ তারিখ সমুদ্রের অবস্থা আরো খারাপ হবে। ২০ তারিখ এই ঝড়ের ফলে সমুদ্র  আরও ভয়াবহ রূপ নেবে। তাই যারা মাছ ধরতে সমুদ্রে রয়েছে তাদেরকে কালকের মধ্যে ফিরে আসার নির্দেশ। পাশাপাশি ১৮ তারিখ থেকে সমুদ্র যেতে মানা করা হয়েছে মৎসজীবিদের।

 

 

কলকাতা মেডিক্যালের ভিতরের রাস্তায় অবহেলায় মৃত্যু এক বৃদ্ধের, করোনা আতঙ্কে দেহ ছুঁলেন না কেউ

অস্ত্রোপচারের পর রোগীর রিপোর্ট পজিটিভ, করোনা আক্রান্ত মুকুন্দপুর আমরির এক চিকিৎসক ও নার্স

কোভিড হাসপাতালে স্বাভাবিক মৃত্য়ুতেও পরিবার চাইলে সৎকার করবে কলকাতা পৌরসভা, জানালেন ফিরহাদ

করোনা আক্রান্ত প্রাণ হারালেন এবার রাজ্যের এক আইনজীবী, এদিকে আইসোলেশনে তাঁর স্ত্রী