মল্লিক বাজারের  ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অফ নিউরোসায়েন্সের দুই শীর্ষ আধিকারিকের করোনাভাইরাস সংক্রমণের আশঙ্কা। দুই শীর্ষ আধিকারিকেরই নমুনা পরীক্ষার রিপোর্ট পজেটিভ এসেছে।এই খবর প্রকাশ পেতেই আতঙ্ক ছড়িয়েছে হাসপাতাল চত্বরে। যদিও স্বাস্থ্যভবন সূত্রে এবিষয়ে এখনও কোনও তথ্য জানানো হয়নি। সূত্রের খবর, স্বাস্থ্য়ভবনের সঙ্গে কথা বলে তবেই পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেবে মল্লিক বাজারের  ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অফ নিউরোসায়েন্স হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

আরও পড়ুন, রাজ্য়ের করোনা পরিস্থিতি 'চূড়ান্ত বিরক্তিকর', মুখ্যমন্ত্রীকে খোলা চিঠি পাঠিয়ে দাবি প্রবাসী চিকিৎসকদের


সূত্রের খবর, সম্প্রতি ইনস্টিটিউট অফ নিউরোসায়েন্সে ভর্তি ছিলেন এক বর্ষীয়ান আইনজীবী। এরপরেই তাঁর অস্ত্রোপচার হয়। কিন্তু আইনজীবীর শরীরে করোনাভাইরাসের উপসর্গ মেলায় তাঁর লালারস নমুনা পরীক্ষার জন্য় পাঠানো হয়। এরপর ওই আইনজীবীর করোনা রিপোর্ট পজিটিভ আসে। প্রাথমিকভাবে অনুমান করা হচ্ছে, সেখান থেকেই করোনাভাইরাসে সংক্রমণ ছড়িয়েছে হাসপাতালে। সেদিনের পরই ওই আইনজীবীর সংস্পর্শে আসা বেশ কয়েকজনকে কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়েছিল।

আরও পড়ুন, মমতাকে ১৪ পাতার চিঠি রাজ্য়পালের, কী কী বিষয়ে দাগলেন তোপ


অপরদিকে ওই আইনজীবীর সংস্পর্শে আসা ব্য়ক্তিদের রিপোর্ট এসেছে শুক্রবার। সূত্রের খবর, সেখানেই দুই শীর্ষ আধিকারিকের রিপোর্ট পজেটিভ এসেছে । শীর্ষকর্তার সংক্রমণের ঘটনা প্রকাশ্যে আসতেই চূড়ান্ত সতর্কতা নেওয়া হয়েছে। নিরাপত্তা ও সুরক্ষা নিশ্ছিদ্র করতে ইতিমধ্য়ে জীবাণু মুক্তের কাজ শুরু হয়েছে।  পুরো পরিস্থিতি খতিয়ে দেখছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। 

 

 করোনায় রাজ্যে মৃতের সংখ্য়া বেড়ে ১৮, গত চব্বিশ ঘন্টায় নতুন করে আক্রান্ত আরও ৫১
 

করোনা সচেতনতায় মৌলালি ও বেহালায় মুখ্যমন্ত্রী, লকডাউন সফলে এলাকাবাসীকে ধন্যবাদও জানিয়েছেন তিনি

  মেডিক্যালের ছোঁওয়া মানিকতলায়, করোনা আক্রান্তের সংস্পর্শে আসায় দমকল কেন্দ্রের ৩২ কর্মী কোয়রান্টিনে