করোনা আবহের পরিস্থিতি দেশ তথা রাজ্য়ের বুকে প্রায় এক বছরের পথে এগোচ্ছে। মাঝের এই সময় মৃত্যু অসংখ্য মানুষের। তারপর একটা সময় দীর্ঘ লকডাউনে কাটিয়েছে রাজ্য। তারপর ধাপে ধাপে এখন নতুন বছরে সংক্রমণ প্রায় হ্রাসের পথে। এমনই সময় একই সঙ্গে বাংলায় পৌছেছে কো-ভ্যাক্সিন। তবুও মানুষের মনে এখনও ভয়। প্রিয় জনকে হারানোর ভয়। কো-ভ্যাক্সিন নেওয়ার পর পার্শ্ব প্রতিক্রিয়ার ভয়। আর এই পরিস্থিতিতে সাধারণ মানুষকে সাহস যোগাতে বার্তা পাঠালো পশ্চিমবঙ্গের ডাক্তারদের সংগঠনগুলি।

আরও পড়ুন, বাংলায় কোভিডে মৃত্যুর সংখ্য়া ছাড়াল ১০ হাজার, কমছে দৈনিক সুস্থতার সংখ্যাও

 

 

জয়েন্ট প্লাটফরম অফ ডক্টরস অফ ওয়েস্ট বেঙ্গল, পশ্চিমবঙ্গের ডাক্তারদের সংগঠনগুলির তরফ থেকে বার্তাটিতে জানানো হয়েছে,'আমরা পশ্চিমবঙ্গের ডাক্তারদের সংগঠনগুলির যুক্ত মঞ্চের তরফ থেকে পশ্চিমবঙ্গবাসীদের একটি বার্তা দিতে চাই। বার্তাটি হোল জানি আপনারা ভয় পাচ্ছেন কিন্তু দয়া করে আপনারা ভয় পাবেন না। আমরা ডাক্তার, স্বাস্থ্যকর্মীরা আপনাদের পাশেই আছি। এবং যে কোনো পরিস্থিতিতে আপনাদের হাত আমরা ছাড়ব না। আপনারা শুধু শারীরিক দূরত্ব, বারবার হাত ধোয়ার অভ্যেস বজায় রাখুন। খুব প্রয়োজন না হলে বাড়ি থেকে বেরোবেন না। বাড়িতে থাকুন। বাইরে গেলে মাস্ক পরে বেরোবেন।  সবাই মিলে চেষ্টা করছি আমরা, নিশ্চয়ই এই বিপদ কাটিয়ে উঠতে পারব। আমরা আপনারা একসঙ্গে ঠিক বিজয়ী হব, এটা আমাদের দৃঢ় বিশ্বাস।' 

আরও পড়ুন, 'রাজীব বিরোধী সাক্ষী পকেটমারকে মুখপাত্র', 'বৈশাখীর গ্ল্যাক্সো বেবি'র পাল্টা জবাব শোভনের


প্রসঙ্গত, কলকাতার ২০৯ টি সরকারি হাসপাতালে করোনার টিকা দেওয়া হবে। এক-একটি হাসপাতালে ৫ টি বুথ খোলা হবে। শনিবার সকাল ৯ টায় টিকাকরণ শুরু হবে। চলবে বিকেল ৫ অবধি। অপেক্ষারত শেষ ব্য়ক্তিও টিকা পাবেন। উল্লেখ্য, স্তন্যদাত্রী-সন্তান সম্ভবাদের এখনই করোনা টিকা নয়, জানিয়েছে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ মন্ত্রক।