শহর কলকাতার আকাশ সোমবার সারাদিনই মেঘে ঢাকা থাকবে। মঙ্গলবার অবধি চলবে এমন আবহাওয়া। স্বাভাবিকভাবে তাই আজও ফের সূর্যোদয় দেখতে পরেনি শহরবাসী। মেঘের আড়ালেই সোমবার সূর্যোদয় হয়েছে।আবহাওয়া দফতরের খবর অনুযায়ী, সোমবার কলকাতার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৪.২ ডিগ্রি সেলসিয়াস। যা স্বাভাবিকের থেকে এক ডিগ্রি কম। রাজ্য়ে টানা মঙ্গলবার অবধি ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস। রবিবার সন্ধেয় বজ্রবিদ্য়ুৎ সহ তুমুল ঝড়-বৃষ্টি শুরু হতে পারে রাজ্য়ের একাধিক জেলায়।    আগামী ২৪ ঘন্টায় রাজ্য় সহ কলকাতায় ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস। গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গের একাধিক জেলায় কালবৈশাখীর পূর্বাভাস।

আরও পড়ুন, স্ক্রিন ছুঁয়েই প্রিয় জনের অনুভূতি, করোনা রুখতে শহরের হাসপাতালে চালু 'ভারচুয়াল ভিজিটিং আওয়ার্স'


আবহাওয়া দফতরের খবর অনুযায়ী, সোমবার কলকাতার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৪.২ ডিগ্রি সেলসিয়াস। যা স্বাভাবিকের থেকে এক ডিগ্রি কম। এবং সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৩.২ ডিগ্রি সেলসিয়াস। যা স্বাভাবিকের থেকে দুই ডিগ্রি কম। শহরের বাতাসে আপেক্ষিক আর্দ্রতার পরিমাণ সর্বাধিক ৯১ শতাংশ। আপেক্ষিক আর্দ্রতার পরিমাণ ন্যূনতম ৪৩ শতাংশ। সোমবার এই মুহূর্তে শহর কলকাতার তাপমাত্রা ২৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। উত্তর-পশ্চিম বঙ্গোপসাগরে সমুদ্র উত্তাল হওয়ার কারণে সোমবার মৎস্যজীবীদের উত্তর-পশ্চিম বঙ্গোপসাগরে যেতে নিষেধ করা হয়েছে।

আরও পড়ুন, চিন থেকে সোজা কলকাতা বিমানবন্দরে, ১০ টন করোনা-চিকিৎসার সামগ্রী নিয়ে শহরে নামল উড়ান

ছত্রিশগড় এবং মেঘালয়ে দুটি ঘূর্ণাবর্ত। ছত্রিশগড় থেকে একটি অক্ষরেখা মেঘালয় পর্যন্ত বিস্তৃত। অক্ষরেখা টি গাঙ্গেয়  ওড়িশা গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গ ও বাংলাদেশের ওপর দিয়ে বিস্তৃত। এর জেরেই সাগর থেকে ঢুকছে জলীয়বাষ্প। আগামী ৪৮ ঘন্টা গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গের পুরুলিয়া, বাঁকুড়া, ঝাড়গ্রাম, পশ্চিম ও পূর্ব মেদিনীপুর, উত্তর ও দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলায় ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা। গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গের একাধিক জেলায় বিক্ষিপ্ত ঝোড়ো হাওয়া কালবৈশাখীও হতে পারে। ঝড়-বৃষ্টির সঙ্গে এমনকি শিলা বৃষ্টিরও সম্ভাবনা বিহার, ঝারখন্ড এবং ওড়িশাতেও। ৪০ থেকে ৫০ কিমি গতিবেগে ধেয়ে আসছে কালবৈশাখী। ৩০ এপ্রিল দক্ষিণ আন্দামান সাগরে ও সংলগ্ন দক্ষিণ-পূর্ব বঙ্গোপসাগরে তৈরি হবে নিম্নচাপ। নিম্নচাপটি শক্তি সঞ্চয় করে  ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হতে পারে। প্রথমদিকে উত্তর উত্তর পশ্চিম এবং পরে উত্তর ও উত্তর পূর্ব দিকে অগ্রসর হবে। ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হলে মে মাসের ৪ তারিখ সোমবারে দক্ষিণ পূর্ব মায়ানমার উপকূল অথবা বাংলাদেশ উপকূলে আছড়ে পড়ার সম্ভাবনা।

 আরও পড়ুন, পেটের জ্বালায় লকডাউন লঙ্ঘন, বজ্রাঘাতে প্রাণ হারালেন মুর্শিদাবাদের কৃষক

 

 

বাবুলের কথা এবার চিকিৎসক সংগঠনের মুখে,করোনায় মৃত্যু স্বাস্থ্য়কর্তার -স্বীকার করুক রাজ্য

১৮ থেকে বাংলায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে ২০, করোনায় আক্রান্ত ৪৬১

 করোনা উপসর্গ সহ হাসপাতালে ভর্তি সল্টলেকের আরও ১, আতঙ্কে এলাকার সমস্ত গলি বন্ধ করল বাসিন্দারা

 মল্লিক বাজারের নিউরো হাসপাতালে করোনা পজিটিভ ২ শীর্ষ কর্তা, সংক্রমণের আশঙ্কায় চূড়ান্ত সতর্কতা

 এবার বেসরকারিতেও করোনা চিকিৎসায় মিলবে বিনামূল্য়ের পরিষেবা, হাসপাতালের খরচও দেবে রাজ্য সরকার