রাজ্য সরকারি কর্মচারী ও আধিকারিকদের ক্ষেত্রে আগামী ৩১ মার্চ পর্যন্ত এক সপ্তাহ অন্তর হাজিরা নিয়ম চালু করল নবান্ন। মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশ অনুযায়ী এই নিয়ম চালু হল।  নবান্নে মুখ্যমন্ত্রী করোমা রুখতে একাধিক সর্তকতামূলক পদক্ষেপের কথা বলেন। সেখানেই বেসরকারি সংস্থার কর্মীদের হাজিরা ৫০ শতাংশ করার পরামর্শ দেন তিনি। প্রয়োজনে 'ওয়ার্ক ফ্রম হোম'-এর ব্যবস্থার কথাও বলেন তিনি।

আরও পড়ুন, ৬ মাস বিনামূল্য়ে রেশন দেবে রাজ্য়, করোনা আতঙ্কে ঘোষণা মুখ্য়মন্ত্রীর


করোনা সতর্কতায় সব সরকারি অফিসে ৫০ শতাংশ উপস্থিতি করা হচ্ছে। খুব জরুরি ছাড়া কোনও দপ্তরের মিটিং করা হবে না। এক্ষেত্রে জোর দেওয়া হবে ই-ফাইলিং ব্যবস্থায়। এই সময়ে নির্দিষ্ট কারণ ছাড়া ভিজিটরদের ঢুকতে দেওয়া হবে না, নবান্নে। ঢুকতে দিলেও তাকে প্রয়োজনীয় স্যানিটাইজার দিতে হবে এবং থার্মাল স্ক্রিনিং করতে হবে। অর্থ দপ্তর থেকে শুক্রবার এই বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়। ডাক্তার নার্স বা জরুরি কাজে নিযুক্তদের পুজোর পর বিশেষ ছুটি দেওয়া হবে।

আরও পড়ুন, 'চাইনিজ-নেপালিজ' তোমরা রোগ নিয়ে এসেছ, ফেসবুকে ভাইরাল কলকাতার জাতি বিদ্বেষ


অপরদিকে, করোনা মোকাবিলায় এবার বিনামূল্য়ে ৬মাসের রেশন দেওয়ার ঘোষণা করেন মুখ্যমন্ত্রী। আগামী দিনে রেশন ব্যবস্থার মাধ্যমে রাজ্য়ের ৭ লক্ষ ৮৫ হাজার মানুষকে   দুই টাকা কেজি দরের চাল আগামী সেপ্টেম্বর পর্যন্ত বিনামূল্য দেবে রাজ্য সরকার। পাশাপাশি বাইরের দেশ থেকে করোনা ভাইরাসের শিকার যেন রাজ্য না হয়, তাই কলকাতায় আন্তর্জাতিক বিমান নামানো বন্ধ করারা দাবি করেছেন মুখ্যমন্ত্রী। 

আরও পড়ুন, করোনা রুখতে সতর্কতামূলক পদক্ষেপ, স্যানিটাইজার বানাচ্ছে যাদবপুর-প্রেসিডেন্সি