করোনা চিকিৎসায় পরিষেবা বাড়াতে ৫০০ ডাক্তার-নার্স নিচ্ছে রাজ্য। প্রাথমিকভাবে অন্তত ২০০ চিকিৎসককে চুক্তিতে নিয়োগ করা হবে। চুক্তির ভিত্তিতে আনা হবে ৩০০ নার্স ও পর্যাপ্ত মাইক্রোবায়োলজিস্ট। এই ব্যাপারে স্বাস্থ্যদপ্তর ইতিমধ্যেই পাকা সিদ্ধান্ত নিয়েও ফেলেছে।

আরও পড়ুন, সোমবার থেকেই খুলছে কলকাতার ৪৫ পুর বাজার, জানুন কী কী বিষয়ে কড়াকড়ি

 
বাংলায় ফেরত আসা পরিযায়ী শ্রমিকের সংখ্যার সঙ্গে বাড়ছে সন্দেহভাজন করোনা আক্রান্তের সংখ্যাও। এ নিয়ে রীতিমতো উদ্বিগ্ন  রাজ্য প্রশাসন। আগাম সতর্কতা হিসাবে সংক্রমণ ঠেকানোর লক্ষ্যে ইতিমধ্যে প্রায় ৫৭টি বেসরকারি হাসপাতালে করোনা চিকিৎসার ব্যবস্থা হয়েছে। এবার শুরু হয়েছে চিকিৎসক, নার্স এবং ব্যাপকহারে মাইক্রোবায়োলজিস্ট নিয়োগের উদ্যোগ।  স্বাস্থ্য-সূত্রের খবর, এই মুহূর্তে কলকাতা-সহ গোটা রাজ্যে প্রায় ৬৪টি সরকারি হাসপাতালে কোভিড-১৯ আক্রান্তদের চিকিৎসা চলছে।

আরও পড়ুন, করোনার কোপ, ৬২৪ বছরে প্রথমবার স্থগিত মাহেশের রথযাত্রা


রাজ্য়ের স্বাস্থ্যসচিব জানিয়েছেন, প্রাথমিকভাবে করোনা মোকাবিলায় অন্তত দুশো চিকিৎসককে চুক্তিতে নিয়োগ করা হবে। চুক্তির ভিত্তিতে আনা হবে তিনশো নার্স ও পর্যাপ্ত মাইক্রোবায়োলজিস্ট। স্বাস্থ্যদপ্তরের এক যুগ্মসচিব জানিয়েছেন, প্রস্তাবটি অনুমোদনের জন্য নবান্নে অর্থদপ্তরে পাঠানো হয়েছে। অর্থাৎ নীতিগত সিদ্ধান্ত পাকা। শুধু নবান্নের আনুষ্ঠানিক সিলমোহরের অপেক্ষা। 
 

 

করোনা আক্রান্ত রাজ্য়ের তৃণমূল বিধায়ক, কালীঘাটের ফ্ল্য়াট সিল করে বসল পুলিশি প্রহরা

করোনা আক্রান্ত বেলেঘাটা থানার আধিকারিক সহ পরিবারের ৬ সদস্য, আইডিতে এখন চিকিৎসধীন

দেহ রাখার জায়গা না থাকায় ডিপ ফ্রিজ বসছে মেডিকেলের মর্গে, মৃতদেহ 'ম্যানেজমেন্ট'-এ নিয়োগ অ্যাসিস্ট্যান্ট

কোভিড পজিটিভ হয়ে মৃত্য়ু প্রখ্যাত ইতিহাসবিদ হরিশঙ্কর বাসুদেবনের