মাছ খেতে ভালবাসেন না, এমন বাঙালি বোধহয় খুব কমই আছে এই দুনিয়ায়! মাছ ছাড়া অসম্পূর্ণ থেকে যায় দুপুরের খাওয়া। আর দুপুরের ভোজনে যদি পাতে পরে কই মাছ তাহলে তো আর কথাই নেই। আর মাছে-ভাতে বাঙালির অত্যন্ত প্রিয় একটি পদ হল তেল কই,—যার নাম শুনলেই জিভে জল আসে! আজ রইল সেই জিভে জল আনা রেসিপি শাহী তেল কই।

আরও পড়ুন- অবিশ্বাস্য, এবার ফ্যাট খেলেই মুক্তি পাবেন বাড়তি ওজন থেকে

শাহী তেল কই বানাতে লাগবে-

কই মাছ ৪-৫ টা
২ চা চামচ আদা বাটা
২ চা চামচ জিরা বাটা
২ টেবল চামচ টক দই
২ চা চামচ শুকনো লঙ্কার গুঁড়ো
৩ টেবল চামচ পেঁয়াজ বাটা
২ চা চামচ হলুদ গুঁড়ো

আরও পড়ুন- মাছে ভাতে বাঙালির জন্য পমফ্রেট কালিয়া, রইল সহজ রেসিপি
৬-৭ টা কাঁচা লঙ্কা
৩-৪ টে ছোট এলাচ
২-৩ টে দারচিনি
২ চা চামচ রসুন বাটা
২ টো তেজপাতা
সামান্য চিনি
পরিমান মত সরষের তেল
স্বাদমতন লবন

যে ভাবে বানাবেন-

আরও পড়ুন- খাওয়ার পাত জমুক এক স্বর্গীয় স্বাদে, রইল ইলিশ ভর্তার রেসিপি

প্রথমে কই মাছগুলো ভাল করে ধুয়ে হলুদ ও লবন মাখিয়ে রেখে দিন।
পাত্রে তেল গরম করে হালকা করে ভেজে তুলে রাখুন।
মাছ ভাজা তেলে তেজপাতা দিয়ে এরপর তাতে একে একে পেঁয়াজ বাটা, রসুন বাটা, আদা বাটা, জিরা বাটা, টক দই, শুকনা লঙ্কা ও হলুদের গুঁড়া, লবণ, এলাচ, দারচিনি দিয়ে ভালো করে কষান।
প্রয়োজনে সামান্য জল দিয়ে ঢেকে দিন। 
মশলা থেকে তেল বের হতে থাকলে ভাজা মাছ ছেড়ে এমন মাপে জল দিন যাতে মাছের অর্ধেকটা ডুবে থাকে।
এইভাবে কিছু সময় রান্না হওয়ার পর মাছগুলো উল্টে দিন।
আরও ৫ মিনিট হালকা আঁচে রেখে কাঁচা লঙ্কা চিরে ছড়িয়ে দিন।
 ১-২ মিনিট দমে রাখুন, পাত্রটি নামানোর আগে সামান্য চিনি ছড়িয়ে নেড়ে দিন।
গরম গরম ভাতের সঙ্গে পরিবেশন করুন জিভে জল আনা শাহী তেল কই।