বর্তমানে স্বাস্থ্য সচেতনতার খাতিরে অনেকেই নিয়ম মেনে খাওয়া-দাওয়া করেন। আর ঠিক এই কারনেই মিষ্টি খাওয়া কমিয়ে দিয়েছেন অনেকেই। তবে মিষ্টি খেতে পছন্দ করেন না এমন মানুষ বোধহয় হাতে গুনে পাওয়া যাবে। এমন অনেকেই আছেন যারা সকালের জল খাবার হোক দুপুরের খাবার শেষ পাতে এক টুকরো মিষ্টি না খেলে, যেন মন ভরে না কিছুতেই। তাই সামান্য হলেও অন্তত একটি মিষ্টি কিন্তু শেষ পাতে অভ্যাস অনেকেরই। কিন্তু কখনও কি ভেবে দেখেছেন এই অভ্যাস স্বাস্থ্যের পক্ষে ভালো না ক্ষতিকর। এই বিষয়ে কি বলছেন বিশেষজ্ঞরা।

আরও পড়ুন- সাবধান, শুধু মশার কামড়ে নয় যৌন সংসর্গেও ছড়ায় ডেঙ্গি বলছে সমীক্ষা

ঠাকুমা-দিদিমাদের মুখে প্রায়ই শোনা যায়, শেষ পাতে এক টুকরো মিষ্টি খাওয়া ভালো, এতে খাবার হজমে সাহায্য করে। আর ঠিক অই কারণেই যে কোনও অনুষ্ঠান বাড়িতে শেষ পাতে ব্যবস্থা থাকে মিষ্টি-মুখের। তবে বিশেষজ্ঞরা এই বিষয়ে জানিয়েছেন, অতিরিক্ত মশলাযুক্ত খাবার স্বাস্থ্যের পক্ষে খুব ক্ষতিকর। এই ধরনের খাবার খেলে শরীরে অ্যাসিড ক্ষরণের পরিমান বৃদ্ধি পায়। আর মিষ্টি জাতীয় খাবার সেই পরিমান অনেকটাই কমিয়ে দেয়। ফলে পরিপাক ক্রিয়া সুষ্ঠভাবে চলতে থাকে। আবার একইভাবে অতিরিক্ত তেল শরীরে পক্ষে ক্ষতিকর। এই জাতীয় খাবারের ফলে রক্তচাপের তারতম্যও ঘটে। পাশাপাশি মিষ্টি জাতীয় খাবার রক্তচাপ স্বাভাবিক করতে সাহায্য করে।

আরও পড়ুন- কোষ্ঠকাঠিন্যের সমস্যায় ভুগছেন, তাহলে অবশ্যই মেনে চলুন এই নিয়মগুলি

তবে, মিষ্টি জাতীয় খাবার শরীরে ফ্যাটের পরিমাণ অনেকটাই বাড়িয়ে দিতে পারে। তাই অতিরিক্ত মিষ্টি খাওয়া শরীরের পক্ষে ক্ষতিকর। এমনকি অতিরিক্ত মিষ্টি খেলে হতে পারে ক্যান্সারও। এই কারণে ইনসুলিন রেজিস্ট্যান্সকে দায়ী করেছেন গবেষকরা। তাই মিষ্টি খেলেও মাত্রা অনুযায়ী বা নিয়ম মেনে খাওয়া উচিৎ।