ভুঁড়ি বা শরীরের বাড়তি মেদ কেউই পছন্দ করেন না।  পেটে জমে থাকা বাড়তি মেদ খুব অস্বস্তিকর একটি সমস্যা। পুরুষ-মহিলা নির্বিশেষ এই সমস্যা শারীরিক সৌন্দর্য কে নষ্ট করে দেয়। সাধারণত খাওয়া-দাওয়ার অনিয়ম ও ব্যস্ত লাইফস্টাইলের জন্য ওবেসিটি বর্তমান সময়ে একটি চিন্তার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। অনিয়মিত এই খাওয়ার অভ্যাসের কারণে শরীরে জমছে মেদ। আর এর ফলেই সৃষ্টি হচ্ছে নানা অসুখ-বিসুখের। কর্মব্যস্ত জীবন যাত্রায় অল্প বয়সেই স্থুলতার সমস্যায় ভোগেন অনেকেই।

আরও পড়ুন- পেঁয়াজের দাম আগুন, দিন চালাতে কপালে ভাঁজ মধ্যবিত্তের

শুধু ফ্যাশন বা স্টাইলের জন্য নয় ভুঁড়ি বা মেদবহুল শরীর স্বাস্থ্যের পক্ষেও ক্ষতিকর। স্যাচুরেটেড ফ্যাট মূলতঃ প্রানীজ উৎস থেকে পাওয়া যায় যেমন- রেড মিট, পূর্নমাত্রায় ফ্যাটযুক্ত দুগ্ধজাত দ্রব্যাদি ইত্যাদি। এই ফ্যাট রক্তের সামগ্রিক কোলেস্টেরলের মাত্রা ও লো-ডেনসিটি লাইপো প্রোটিন এর মাত্রা বাড়িয়ে দেয়, ফলত  আপনার শরীরে কার্ডিয়-ভাসকুলার রোগ, ডায়াবেটিস ইত্যাদির সম্ভাবনা ভীষনভাবে বেড়ে যায়। এছাড়া শরীরে অতিরিক্ত মেদ বাড়তে থাকলে হাঁটুর সমস্যা-সহ ব্লাড প্রেসার, ডায়বেটিস এৎ মত সমস্যাও বৃদ্ধি পেতে থাকে। তাই খুব দ্রুত ওজন কমাতে ডায়েটে রাখুন এই পাঁচ ধরণের বাদাম। 

আরও পড়ুন- মধুর উপকার তো জানেন, রোগ নিরাময়ে ব্যবহার করুন নিয়ম মেনে

খাবার পাতে রাখুন কয়েকটা পেস্তা। কয়েক মাস নিয়মিত পেস্তা খেলেই কমবে ওজন।
খিদে পেলে খেয়ে নিন একমুঠো চিনে বাদাম, এতে মিটবে শরীরের প্রয়োজনীয় পুষ্টি।
স্বাস্থ্য ভালো রাখতে প্রতিদিন খালি পেটে খান ১ বা ২টি আখরোট। এর ফলে কমবে খিদে একইসঙ্গে কমবে ডায়বেটিসে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকিও।
এই বাদামগুলির সঙ্গে রাখুন ৫-৬টা আমন্ড। রাতে ভিজিয়ে রেখে পরের দিন সকালে খেয়ে নিন। দ্রুত ওজন কমাতে সাহায্য করে এই বাদাম।
একইসঙ্গে ওজন কমাতে পাতে রাখুন কাজু। এছাড়া কাজু বাদামে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে কপার, ম্যাগনেসিয়াম ও ফসফরাস ও কম মাত্রায় ক্যালসিয়াম।
একসঙ্গে এই পাঁচ বাদাম ওজন কমাতে দ্রুত সাহায্য করবে।