তাল একটি অত্যন্ত জনপ্রিয় ফল। ভাদ্র মাসে পাকা তালের বড়া একটি অত্যন্ত সুস্বাদু খাবার। কিন্তু এখন বাজারে কচি তালের শাঁস খুবই চোখে পড়ে। জানেন কী এই তালের শাঁসেই রয়েছে এমন কিছু পুষ্টিগুণ, যা শরীরে পক্ষে খুবই উপকারি। জেনে নিন তাল শাঁসের কিছু উপকারিতার কথা। 

১) তালের শাঁসে থাকা জলীয় অংশ শরীরে জলশূণ্যতা দূর করতে সাহায্য। এবং সেইসঙ্গে শরীর জলের অভাব দূর করে। 

২) তালে শাঁসে রয়েছে ভিটামিন সি ও বি কমপ্লেক্স যা শরীরের জন্য বিশেষভাবে উপকারি।  

৩) তালে শাঁসে রয়েছে ভিটামিন এ, যা দৃষ্টিশক্তিকে প্রখর করতে সাহায্য করে। 

৪) তালে শাঁসে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টি অক্সিডেন্ট, যা শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়িয়ে দিতে সাহায্য করে।

৫) অনেক সময়ে অ্যাসিডিটির ফলে বমিভাব হয় এবং খাবার বিস্বাদ লাগে। কচি তালের শাঁস এই বমিভাব দূর করতে সাহায্য করে। সেইসঙ্গে খাবারে অরুচিভাব কাটিয়ে উঠতে সাহায্য করে। 

৬) কচি তালের শাঁস লিভারের সমস্যা দূর করতে সাহায্য করে।

৭) আপনার যদি অ্যানিমিয়া বা রক্তাল্পতা থেকে থাকে, তাহলে তা দূর করতে খান কচি তালের শাঁস। 

ত্বক ও স্বাস্থ্যের যত্নে হাতে তুলে নিন এক গ্লাস ডাবের জল

৮) তালের শাঁসে থাকা ক্যালসিয়াম হাড়ের গঠনে বিশেষ ভূমিকা পালন করে। 

৯) ত্বককে সুন্দর, উজ্জ্বল ও দীপ্তিময় করে তুলতে নিয়ম করে খান তালের শাঁস।