গ্রীষ্মকাল মানেই আম-কাঁঠালের সময়। তবে এর পাশাপাশি আর একটি ফল বাজারে চোখে পড়ছে, তা হল কালো জাম। এই কালো জামে রয়েছে এমন অনেক স্বাস্থ্যগুণ যা অনেকেরই অজানা। প্রতিদিন কালো জাম খেলে দূরে থাকবে রোগ-বালাই এবং শরীর থাকবে সুস্থ। 

  • ডায়াবেটিস প্রতিরোধ করে- আজকাল বেশিরভাগ মানুষই ডায়াবেটিস-এর সমস্যায় ভুগে থাকেন। কালো জামের মধ্যে থাকা উপাদান ডায়াবেটিস প্রতিরোধ করতে বিশেষভাবে সাহায্য করে। গবেষণায় দেখা গিয়েছে যে জামের বীজ রক্তে চিনির ভাগ ৩০ শতাংশ পর্যন্ত কমাতে সাহায্য করে। 
  • রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করে- কালো জামের মধ্যে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ক্যালসিয়াম, আয়রন, পটাশিয়াম এবং ভিটামিন সি। যা রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে সাহায্য করে। এর পাশাপাশি কালো জাম হাড়কে শক্তিশালী ও মজবুত করে তুলতে সাহায্য করে। তাই ছোটদের জন্য কালো জাম খুবই ভাল।  
  • সংক্রমণ কমাতে সাহায্য করে- জামের মধ্যে রয়েছে এমন উপাদান যা, শরীরের বিভিন্নরকমের ব্যাকটেরিয়া সংক্রমণ কমাতে সাহায্য করে। 
  • হজমে সাহায্য করে- কালো জামের পাতা হজমে বিশেষভাবে সাহায্য করে থাকে। প্রাচীনকালে আয়ুর্বেদ শাস্ত্রে হজমের জন্য জাম পাতার ব্যবহার উল্লেখ করা হয়েছে। 
  • হৃদরোগের ঝুঁকি কমায়- কালো জামে রয়েছে এমন কিছু বিশেষ ধরণের অ্যান্টি অক্সিডেন্ট জাতীয় উপাদান যা, শরীরে খারাপ কোলেস্টরল কমাতে সাহায্য করে এবং শরীরে হৃদরোগ সৃষ্টিকারী প্লাক গঠনে বাধা দেয়। শুধু তাই নয়, হাইপারটেনশন প্রতিরোধেও খুব ভাল কাজ করে জাম।  
  • ক্যান্সার প্রতিরোধেও সাহায্য করে- একটি গবেষণায় দেখা গিয়েছে যে, জামের মধ্যে রয়েছে ক্যান্সার প্রতিরোধকারী উপাদান। নিয়মিত জাম খেলে ক্যান্সারকে খুব সহজেই প্রতিরোধ করা যায়। 
  • খাওয়ার পর শেষ পাতে মুখশুদ্ধি হিসাবে মৌরি কেন দেওয়া হয় জানেন
  • স্বাস্থ্যজ্জোল ত্বক গড়ে তুলতে বিশেষভাবে সাহায্য করে- কালো জামের মধ্যে থাকা বিশেষ উপাদান ত্বকের মধ্যে থাকা টিস্যুগুলিকে টান টান করতে সাহায্য করে এবং ত্বকের তারুণ্যও ধরে রাখে আজীবন।