রান্না একটি আর্ট। নানান শিল্পর মতো রান্নাও একটি শিল্প বটে। রান্না নিয়ে এখন অনেক রকম এক্সপেরিমন্ট আমরা প্রত্যেকেই করে থাকি। কেউ কেউ  আবার খুবই দক্ষ হন এই রান্নার কাজে। কারোর আবার মন খারাপের সঙ্গীও এই রান্না। কিন্তু সবসময় শিল্পকর্ম যেমন নিপুন হয় না। তেমনই রান্নাও সবসময় ঠিক হয়না। মন ভাল না লাগলে মনসংযোগের অভাবে রান্না অনেকসময়েই সুস্বাদু হয় না। অনেক সময় একসঙ্গে অনেক লোকের রান্না করলেও সেটা যেন মনের মতোনহয় না। কখনও কখনও এত কাজের মাঝে কখন যে রান্না পুড়ে যায় বা নষ্ট হয়ে যায় সেই নিয়েও শুরু হয় চিন্তা। তবে এখন আর চিন্তার কোনও কারণ নেই। আপনার রান্নার পুরোনো স্বাদ ফিরিয়ে আনতে রইল কয়েকটি টিপস।

আরও পড়ুন-এক মুঠো কালো জিরে বদলে দেবে আপনার ভাগ্য, না জানলেই পস্তাবেন...

তাড়াতাড়ি রান্না করতে গেলে অনেকসময়েই  ঝাল বা নুন বেশি হয়ে যায়। তখন কী করবেন সেই নিয়ে নানা এক্সপেরিমেন্ট শুরু হয়ে যায়। যার ফলে অনেকসময়েই রান্নার আসল স্বাদ নষ্ট হয়ে যায়। তখন রান্না করা তরকারিতে দুধ ও সামান্য চিনি দিয়ে কম আঁচে ঢেকে দিন। খানিক  পরে দেখবেন নুন ও ঝাল দুটোই ঠিক হয়ে গেছে।

অনেকসময়েই রান্না করা মাংসের ঝোল বেশি পাতলা হয়ে যায় । তখন সেই ঝোল শুকোতে গিয়ে যেমন গ্যাস খরচ হয়। তেমনি আবার রান্নাটাও ঠিকমতো হয় না। সেক্ষেত্রে বেশ কিছুটা পেঁয়াজ লাল করে ভেজে নিন। ভাজার সময়েই গোটা গরম মশলা দিয়ে দিন। তারপর রান্নার মধ্যে ভাজা পেঁয়াজ দিয়ে ভাল করে নেড়েচেড়ে কম আঁচে ঢেকে রান্না করুন। দেখবেন ঝোল যেমন গাঢ় হয়ে যাবে, তেমনি আবার পুরোনো স্বাদ ফিরে আসবে।

আরও পড়ুন-বাংলার ঐতিহ্যবাহী এই উৎসব পালিত হয় অগ্রহায়ণ মাসে, জেনে নিন এই উৎসবের তাৎপর্য...

গ্রিল চিকেন বা তন্দুরি চিকেন, বা যে কোনও ধরনের কাবাব বানানোর সময় অনেকসময়েই বেশি পুড়ে যায়। যার ফলে খাবারের আসল স্বাদ, ফ্লেভারটাই কেমন জানি নষ্ট হয়ে যায়। সেক্ষেত্রে কাবাবের সঙ্গে রায়তা বানিয়ে পরিবেশন করুন। রায়তা বানাতে খুব একটা সময় লাগে না। টক দইয়ের মধ্যে চিনি, নুন, চাটমশালা, ধনেপাতা কুচি, পার্সলে পাতা কুচি দিয়ে ভাল করে মিশিয়ে নিন। তাহলেই রেডি আপানার রায়তা। এই রায়তায় আপনার রান্নার স্বাদকে পুরোপুরি ঢেকে দিতে পারে।

ফ্রায়েড রাইস, পোলাও বিরিয়ানি নরম হয়ে গেলে পুরো খাবারটাই যেন নষ্ট হয়ে যায়। সেক্ষেত্রে চাল সেদ্ধ করার সময় নুন ও সামান্য তেল দিয়ে দেবেন। আর যদি রান্নার পর দেখছেন নরম হয়ে গেছে তাহলে একটি পাত্রে ঢেলে সেটাকে পুরো ঠান্ডা করে নিন। পরে আবার গরম করলেই ঠিক হয়ে যায়।

রাস্তার চপের মতো সুস্বাদু চপ বাড়িতে কখনওই যেন হয়ে ওঠে না। তাই চপের উপর সামান্য চাটমশালা ছড়িয়ে পরিবেশন করুন। দেখবেন খেতে অনেকটাই আলাদা লাগছে। তার সঙ্গে সস ও স্যালাড সহযোগে পরিবেশন করুন।

মাছের ঝোলে অনেকসময়েই কেমন একটা আঁশটে গন্ধ বের হয়। সেই গন্ধ দূর করতে ঝোলের মধ্যে টমেটো কুচি, ভাজা জিরের গুঁড়ো, এবং নামানোর আগে ধনেপাতা কুঁচি দিয়ে নামিয়ে নিন। দেখবেন আঁশটে গন্ধ ভ্যানিস হয়ে গেছে।