আর মাত্র কয়েকদিন পরেই শুরু হতে চলেছে নতুন বছর। পুরোনোকে বিদায় জানিয়ে নতুনকে আগমনের পালা। পুরোনো বছরের সমস্ত খুটিনাটি ভুলে গিয়ে নতুন করে শুরু করুন পথ চলা। স্ত্রীকে নতুন বছরে খুশি রাখতে পুরোনো মান অভিমান ভুলে যান।  তাই নতুন বছরে পুরোনো সব ভুলে সুখী দাম্পত্য জীবনে ফেরার রইল কয়েকটি টিপস ।

আরও পড়ুন-অল্পতেই হাঁপিয়ে পড়ছেন, কয়েকটি উপসর্গ দেখে বুঝে নিন রক্তাল্পতা কি না...

নতুন বছর মানেই উৎসবের মরশুম। গোটা শহর যেমন সেজে  উঠেছে আলোর রোশনাইয়ে তেমনি নিজেদের সম্পর্কের মধ্যে ঝগড়া-বিবাদ, মান অভিমান ভুলে হাসিমুখে সময় কাটান।

আর মাত্র একদিন। তারপরেই সবার প্রিয় উৎসব বড়দিন। বড়দিন মানেই ছুটির উৎসব। বড়দিন মানেই কেক খাওয়া। তাই বড়দিনের দিন স্ত্রীর জন্য একটি সারপ্রাইজ পার্টি আয়োজন করতেই পারেন। তাতে দেখবেন পুরোনো ঝগড়া মুহূর্তের মধ্যে উধাও হয়ে গেছে।

নিউইয়ার উপলক্ষে প্রতিটা জায়গায় এখন উৎসবের আমেজ। তাই নিউইয়ারের আগের দিন হয় বাইরে নয়তো ব্যালকনি বা খোলা আকাশের নীচে ছাদের মধ্যে একটা ছোট্ট পার্টির আয়োজন করতে পারেন। এতেও সম্পর্ক অনেকটাই ঠিক হয়ে যাবে।

দুজনে মিলে একসঙ্গে কিছুটা সময় কাটালে দেখবেন মনটাও ভাল হয়ে যাবে। আর দূরত্বও কমে আসবে। 

আরও পড়ুন-পুষ্টিগুণে ভরা এই চাল কেন রাখবেন পাতে, জেনে নিন এর উপকারিতা...

সারা বছরে যা যা স্ত্রীকে বলা হয় নি সময় করে কোনও একটা নির্জন জায়গায় বেরাতে গিয়ে নিজে সবটা শেয়ার করুন। দেখবেন ম্যাজিকের মতোন ঠিক হয়ে যাবে আপনার স্ত্রী।

স্ত্রীর পছন্দের কোনও খাবার একদিন বাড়িতে থেকে নিজেই রান্না করে স্ত্রীকে পরিবেশন করুন। সবথেকে ভাল হয় যদি বছরের প্রথম দিনটা এই কাজটা সেরে ফেলেন। তাহলে তো কোনও কথাই নেই দেখবেন আপনার প্রশংসায় পঞ্চমুখ হবেন আপনার স্ত্রী।

অনেকের মধ্যেই ঝামেলার কারণে যৌনতা হারিয়ে যেতে থাকে। পুরোনো বছরের সব ভুলে সেই সম্পর্ক আবার ফিরিয়ে আনুন। এতে সম্পর্ক আরও গভীর হবে। যৌনতা ছাড়া সম্পর্ক মধুর হয় না তাই একঘেয়ে  সম্পর্কের মাঝে যৌনতার স্বাদ থাকাটাও ভীষণভাবে জরুরি।